আবারও ‘মোনালিসা’ চিত্রায়িত হোক লিটনের ব্যাটে

শাহাদাৎ আহমেদ সাহাদ
শাহাদাৎ আহমেদ সাহাদ শাহাদাৎ আহমেদ সাহাদ , স্পোর্টস রিপোর্টার
প্রকাশিত: ০৫:৫৪ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০২১

‘লিটন দাস পেইন্টিং মোনালিসা উইদ হিজ ব্যাট’- ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে এভাবেই বাংলাদেশ দলের স্টাইলিশ ব্যাটার লিটনের প্রশংসায় বুঁদ হয়েছিলেন প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকার ইয়ান বিশপ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে ৬৯ বলে ৯৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলার পথে সেদিন সত্যিই যেনো ক্রিকেট মাঠে তুলির আঁচড় দিচ্ছিলেন লিটন, যাতে আঁকা হচ্ছিলো লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির বিখ্যাত শিল্পকর্ম মোনালিসা।

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই দর্শনীয় ব্যাটিংয়ে সমর্থকদের মনে নিজের আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশ দলের ডানহাতি ব্যাটার লিটন দাস। তিন ফরম্যাটেই তিনি এখন টাইগারদের নিয়মিত সদস্য। এরই মধ্যে ক্রিকেটের বিশ্ব আসরে খেলার স্বাদ পেয়েছেন ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের মাধ্যমে।

এবার প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে নামছেন লিটন। তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিতে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের এক নম্বর ওপেনার হিসেবেই বিবেচিত হচ্ছেন তিনি। অন্য দুই বাঁহাতি ওপেনার নাঈম শেখ বা সৌম্য সরকারের সঙ্গে টাইগারদের ইনিংসের শক্ত ভিত গড়ার দায়িত্বই থাকবে লিটনের কাঁধে।

২০১৫ সালে ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি অভিষেক লিটনের। তবে ধারাবাহিকতার অভাবে ছিলেন না ভারতের মাটিতে হওয়া ২০১৬ সালের বিশ্ব টি-টোয়েন্টিতে। মূলত ২০১৬ সালে কুড়ি ওভারের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোনো ম্যাচই খেলার সুযোগ হয়নি তার।

পরের বছরও খেলেন মাত্র একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। এই ফরম্যাটে তার ক্যারিয়ারের পুনর্জন্ম ঘটে ২০১৮ সাল থেকে। অভিষেকের তিন বছরের মাথায় পায়ের তলায় শক্ত মাটি খুঁজে নেন লিটন। সে বছর শ্রীলঙ্কার মাটিতে নিদাহাস ট্রফির পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও ব্যাট হাতে স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছোটান ডানহাতি এ ড্যাশিং ব্যাটার।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাত্র ১৯ বলে ৪৩ রান করেন লিটন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে খেলেন ৩২ বলে ৬১ রানের ইনিংস। ধারাবাহিকতা ধরে রেখে ঘরের মাঠে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে তার ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ৬০ ও ২৫ বলে ৪৩ রানের ইনিংস। তবে খানিক হতাশ করেন ২০১৯ সালে, বারবার ভালো শুরুর পরেও ৩৫-৪০ রানে আটকে যায় লিটনের ব্যাট।

২০২০ সালে করোনা মহামারি শুরুর আগে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দেখা পান ক্যারিয়ারের প্রথম ব্যাক টু ব্যাক ফিফটির। কিন্তু চলতি বছর রানের খরা দেখা দিয়েছে লিটনের ব্যাটে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হোম ও অ্যাওয়ে সিরিজে হাসেনি তার ব্যাট। যা খানিক চিন্তার কারণও বটে বাংলাদেশ দলের জন্য।

তবে লিটন দাসের সামর্থ্য ও ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহের জায়গা নেই কোনো। নিজের দিনে যেকোনো বোলিং লাইনআপের বিপক্ষে দৃষ্টিনন্দন ব্যাটিংয়ের প্রমাণ তিনি দিয়েছেন ২০১৮ সালের এশিয়া কাপ কিংবা ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে। সেই ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে আমিরাতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও, এমনটাই আশা কোটি টাইগার ভক্তের।

সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত ৩৮টি কুড়ি ওভারের ম্যাচ খেলেছেন লিটন। যেখানে চার ফিফটির সাহায্যে প্রায় ১৩০ স্ট্রাইকরেটে করেছেন ৭১১ রান।

এসএএস/আইএইচএস

লিটন দাস, জন্ম: ১৩ অক্টোবর, ১৯৯৪, রোল: টপঅর্ডার ব্যাটার, ব্যাটিং স্টাইল: ডানহাতি ব্যাটার, টি-টোয়েন্টি অভিষেক: জুলাই ৫, ২০১৫ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা।

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।