রান পেলেন সৌম্য, ব্যর্থ মুশফিক-লিটন-নাইম-আফিফরা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৪ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০২১

টানা অফফর্মের কারণে যাকে নিয়ে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তা, সেই সৌম্য সরকার অবশেষে রানের দেখা পেলেন। কিন্তু দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে দিলেন টাইগার দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা।

মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, নাইম শেখ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম হোসেন পাটোয়ারী-ব্যাটিংয়ে কারও কাছ থেকেই ভালো একটা ইনিংস পাওয়া গেলো না। ফলে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৭ উইকেটে ১৪৭ রানেই আটকে গেছে বাংলাদেশ।

অথচ আবুধাবির টলারেন্স ওভালে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ওত খারাপ ছিল না বাংলাদেশের। লিটন দাস আর নাইম শেখের ২৫ বলের উদ্বোধনী জুটিতে ওঠে ৩১ রান। ১৪ বলে ১৬ করে লিটন ফিরলে ভাঙে এই জুটি।

নাইম বরাবরের মতো সেট হতে গিয়ে বল বেশি খরচ করে ফেলেন। তবে এবার ইনিংস বড় করতে পারেননি। ১৯ বলে মাত্র ১১ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙতে পারেননি অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম আর আফিফ হোসেন ধ্রুবও। মুশফিক ১৩ বলে ১৩ আর আফিফ ১১ বলে ১১ রানে আউট হন। সৌম্য সরকার অবশ্য হারানো ফর্ম ফিরে পেয়েছেন অনেকটাই।

দুই ছক্কা হাঁকিয়ে দারুণ কিছুর ইঙ্গিতই ছিল তার ব্যাটে। তবে দলের একশ রান পূরণ হওয়ার কিছু পরই থামতে হয়েছে তাকেও। ২৬ বলে ১ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় সৌম্যর উইলো থেকে আসে ৩৪ রান।

এরপর দুষ্মন্ত চামিরার করা ইনিংসের ১৮তম ওভারে টানা দুই বলে সাজঘরে ফেরেন শামীম হোসেন পাটোয়ারী আর নুরুল হাসান সোহান। শামীম ৮ বলে ৫ আর সোহান ১৪ বলে করেন ১৫ রান।

শেষদিকে শেখ মাহেদি হাসানের ১২ বলে অপরাজিত ১৬ (একটি করে চার-ছক্কায়) আর তাসকিন আহমেদের ৪ বলে ৪ রানে কোনোমতে ১৪৭ রানের সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল দুষ্মন্ত চামিরা। ডানহাতি এই পেসার ১৭ রান খরচায় শিকার করেন ৩টি উইকেট।

এমএমআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]