মূল একাদশ খেলেনি, প্রস্তুতি ম্যাচের হার নিয়ে শঙ্কিত নন বাশার

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০২১

বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে পছন্দমতো উইকেটে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের মতো প্রতিপক্ষকে নাকাল করা গেছে। ওমানেও তাদের ‘এ’ দলের বিপক্ষে প্রস্তুতিটা ভালোই হয়েছিল।

কিন্তু আবুধাবিতে এসে মূল দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে গিয়ে বড় ধাক্কা খেয়েছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার পর আয়ারল্যান্ডের কাছেও হেরেছে টাইগাররা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে যে হার আত্মবিশ্বাস নাড়িয়ে দিতে পারে, মনে করছেন অনেকেই।

তবে দলের অন্যতম নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন চিন্তিত নন। বরং মনে করিয়ে দিলেন, প্রস্তুতি মাচে সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান এমনকি নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ছিলেন না। তাই ওই ম্যাচগুলোর হার নিয়ে এত ভাবার কিছু নেই।

বাশারের কথা, ‘ওমানে প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো করেছিলাম। আবুধাবিতে আরেকটু বেশি প্রত্যাশা ছিল। যদিও প্রস্তুতি ম্যাচ, আমরা কিছু জিনিস বাজিয়ে দেখেছি। তবে আমাদের মূল একাদশটা মিসিং। মোস্তাফিজ আইপিএল শেষ করে এসেছে, সাকিব এখনো আইপিএল খেলছে, আমাদের অধিনায়ক খেলতে পারেনি। তবে দেখার বিষয় ছিল বাকিরা কেমন করে সুযোগ নিচ্ছেন।’

বাশার অবশ্য স্বীকার করলেন, ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে আরেকটু ভালো পারফরম্যান্স আশা করেছিলেন। তার ভাষায়, ‘আরেকটু বেশি প্রত্যাশা ছিল, ব্যাটিংয়ে বিশেষ করে। আবুধাবিতে কন্ডিশন ভালো ছিল। টপ অর্ডারে কারও কাছ থেকে একটা বড় ইনিংস আশা করেছিলাম। তবে দল হিসেবে আমরা ভালো আছি। আত্মবিশ্বাসী। প্রস্তুতি ম্যাচ দুটা আরেকটু ভালো খেললে আরেকটু ভালো হতো।’

বিশ্বকাপের মূল আসর মূল তারকারা ফর্মে থাকলে ভালো কিছুর আশা করাই যায়, মনে করছেন হাবিবুল বাশার। তিনি বলেন, ‘আমি আত্মবিশ্বাসী। এর আগে ভালো খেলে এসেছি দেশের মাটিতে। দলটাও আত্মবিশ্বাসী। প্রস্তুতি ম্যাচ তো প্রস্তুতি ম্যাচ। সেটা দিয়ে বিচার করতে চাচ্ছি না, ভাবনারও খুব বেশি কিছু নেই। বিশ্বকাপে কী ফেস করতে যাচ্ছি, সে সম্পর্কে একটা ধারণা হয়ে গেছে। আমাদের কতো বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে। আমরা প্রস্তুত। মূলপর্বে যখন খেলব, আমরা সেরা পারফরম্যান্সটাই দিতে পারব।’

এমএমআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]