প্রস্তুতি ম্যাচে হার নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন রিয়াদ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:২৬ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০২১
ওমানে ফ্লাডলাইটের আলোয় অনুশীলনরত বাংলাদেশ দল, ছবি : বিসিবি

একটা উৎসব উৎসব ভাব চলে এসেছিল গোটা দেশে। মনে হচ্ছিল, আরে বাছাই পর্ব আবার কি? স্কটল্যান্ড, ওমান আর পাপুয়া নিউগিনির মত দলের সাথে খেলা প্রথম পর্ব। ওটা হেসেখেলে পার করে মূল পর্বে ভারত, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান এবং অফগানিস্তানের সাথে খেলবে বাংলাদেশ।

সেই চিন্তায় হঠাৎ ছেদ পড়েছে। উদ্বেগ-উৎকন্ঠা আর শঙ্কা হয়তো নেই। তবে ভক্ত ও সমর্থকদের মনের কোনে হঠাৎই চিন্তার এক চিলতে মেঘ জমেছে। অতিবড় বাংলাদেশ ভক্তও প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলঙ্কা আর আয়ারল্যান্ডের কাছে হারের পর খানিক থমকে দাঁড়িয়েছেন।

মনে হঠাৎ জেগেছে প্রশ্ন, ‘আচ্ছা! প্রাথমিক পর্বটা যত নিশ্চিত ভাবা হচ্ছিল বাস্তবে কি ততটা মসৃন হবে যাত্রা? স্কটল্যান্ড, স্বাগতিক ওমান আর পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের বৈতরণী কী অনায়াসে হেসে খেলে পার হবে বাংলাদেশের?’

এমন প্রশ্ন উঠতেই পারে। কারণ, প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের বোলিং আর ব্যাটিংয়ের দৈন্যতা এবং দুর্বলতা ফুটে উঠেছে। লঙ্কানদের সাথে ১৪৭ রানের ছোট্ট পুঁজি নিয়ে বেশিরভাগ সময় লড়াই করে জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ দিকে আলগা বোলিংয়ের চড়া মাশুল গুনে ৪ উইকেটের হার সঙ্গী হয়েছে।

আর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে এক আইরিশ টপ অর্ডার গ্যারেথ ডিলানি ঝড়েই বেসামাল টাইগার বোলিং-ফিল্ডিং। ডিলানির ৫০ বলে ৮ ছক্কায় করা ৮৮ রানের ঝড়ো ইনিংসের ওপর ভর করে আয়ারল্যান্ড ১৭৭ রানের বড় পুজি খুঁজে পায়। জবাবে ব্যাটিং ব্যর্থতায় ১৪৩-এ থামে বাংলাদেশ।

দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে ১৪০-এর ঘরে আটকে থাকা এবং ১৫০-১৬০ রান করতে না পারাটা সবার চোখে পড়েছে। আর তাই রোববার প্রথম পর্ব শুরুর আগে কিছু নেতিবাচক চিন্তার উন্মেষ ঘটেছে।

আশার কথা, অধিনায়ক মাহমুদউল্লা রিয়াদ সবাইকে আশ্বস্ত করেছেন। স্কটিশদের সাথে ১৭ অক্টোবর রোববার ওমানের মাসকাটে প্রথম ম্যাচের আগে টাইগার ক্যাপ্টেন বলে দিয়েছেন, ওই দুই ওয়ার্মআপ ম্যাচের হারে তাদের ঘুম হারাম হয়নি। তারা হতাশ নন। চিন্তায়ও পড়ে যাননি।

রিয়াদের বিশ্বাস, মাঠে নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে জায়গামত ঠিক সাফল্যর দেখা মিলবে। আজ শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় সংবাদ সম্মেলনে রিয়াদ অনেক কথার ভিড়ে জানিয়েছেন, ‘কে কী বললো, তা নিয়ে আমি মোটেই চিন্তিত নই। মাথাও ঘামাচ্ছি না।’

তার বিশ্বাস ও আস্থা- দল হিসেবে তাদের সামর্থ্য আছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অনেকদুর যাবে বাংলাদেশ। রিয়াদ আরও যোগ করেন, ‘আমরা প্র্যাকটিস ম্যাচের ফল নিয়ে মোটেও উদ্বিগ্ন নই। কারণ আমরা দুই ম্যাচের একটিতেও পুরো দল নিয়ে খেলতে পারিনি এবং আমরা জানি এখন আমাদের কী করতে হবে।’

স্কটিশদের বিপক্ষে তার দল হার্ড ক্রিকেট খেলবে, এমনটা জানিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা যদি হার্ড ক্রিকেট খেলতে পারি, তাহলে ফল আপনা-আপনি ধরা দেবে।’

মোটকথা রিয়াদ পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাদের লক্ষ্য অনেকদুর। তারা এই বাছাই পর্ব নিয়ে তাই বেশি চিন্তা-ভাবনা করতে নারাজ। তবে রিয়াদ স্বীকার করেছেন, তাদের সামনে এগুতে হলে অনেক বাধা বিপত্তি অতিক্রম করতে হবে এবং সে কারনেই তারা ‘স্টেপ বাই স্টেপ’ এগুতে চান।

বাছাই পর্বে মাঠে নামার আগে রিয়াদের শেষ কথা হলো, ‘আমরা যদি রোববার স্কটিশদের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা ঢেলে দিয়ে ভাল ক্রিকেট খেলতে পারি, তাহলে অনেকদুর যাওয়া সম্ভব।’

এআরবি/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]