সিলেটে মিরাজও নিলেন ৬ উইকেট

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৪৮ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১

সিলেটের বিপক্ষে ঢাকার বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল অপু এরই মধ্যে ম্যাচে ১০ উইকেট (৬/২৩ ও ৪/৪১) শিকার করেছে। ওদিকে ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে এক ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়েছেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার বরিশালের তানভির ইসলামও।

এই দুই বাঁহাতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এক ইনিংসে ৬ উইকেটের পতন ঘটিয়েছেন খুলনা তথা জাতীয় দলের অফস্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ।

এ অফস্পিনারের ঘূর্নি বোলিংয়ে সিলেটে খুলনার বিপক্ষে ২৫৭ রানে অলআউট হয়েছে রংপুর। জবাবে এনামুল হক বিজয়ের চওড়া ব্যাটে লিড নেওয়ার পথে অনেক দূর এগিয়ে গেছে খুলনা।

সোমবার ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষে খুলনার স্কোর ৪ উইকেটে ১৭১ রান। এনামুল বিজয় অপরাজিত রয়েছেন ৭২ রানে।

এর আগে অফস্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ৯০ রানে ৬ এবং পেসার আল আমিন হোসেন ৫৬ রানে ৩ উইকেটের পতন ঘটালে ২৫৭ রানে শেষ হয় রংপুরের প্রথম ইনিংস। রংপুরের কেউ বড় ইনিংস খেলতে পারেননি।

ওপেনার জাহিদ জাভেদ (৪০), মিডল অর্ডার মাহমুদুল হাসান লিমন (৩৪), অধিনায়ক নাইম ইসলাম (৩০), নাসির হোসেন (৩২), উইকেটরক্ষক ধীমান ঘোষ (৩১) এবং অলরাউন্ডার আলাউদ্দীন বাবু (২০) ভালো শুরু পেয়েও আউট হয়ে যান ২০ থেকে ৪০'র ভেতরে।

ওদিকে খুলনা এগিয়ে চলেছে এনামুল হক বিজয়ের চওড়া ব্যাটে। অন্যপ্রান্তে কেউ সেভাবে সহায়তা করতে পারেননি। ইমরুল কায়েস ২৫, অভিজ্ঞ তুষার ইমরান ১৩ আর অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন ৩৩ রানে ফিরে গেছেন।

তবে বিজয় অন্য প্রান্তে ৩টি ছক্কা ও ৪ বাউন্ডারিতে ১৩৫ বলে ৭২ রানের সাহসী ইনিংস খেলে অপরাজিত রয়েছেন। সঙ্গে বল হাতে ৬ উইকেট পাওয়া মিরাজ রয়েছেন ১৭ রানে অপরাজিত।

এআরবি/এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]