‘ভারত-জুজু’ কাটাতে প্রস্তুত পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৪ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০২১

বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের উন্মাদনা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। তবে যত যাই হোক না কেন, দিনশেষে জয়ী দলটির নাম ভারতই- আগের পাঁচ ম্যাচ সে সাক্ষ্যই দিচ্ছে। ষষ্ঠবারে এসে পাশার দান উল্টে দিতে চায় পাকিস্তান।     

আউটলুক ইন্ডিয়া তাদের ওয়েবসাইটে এ নিয়ে একটি নিবন্ধ প্রকাশ করেছে। সেখানেই তারা দেখিয়েছে, কিভাবে ভারত জুজু কাটাতে প্রস্তুত পাকিস্তান। সেই নিবন্ধে যা লেখা হয়েছে, সেটা তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য।

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ এলেই ক্রিকেটপ্রেমীদের স্মৃতিতে ভেসে ওঠে ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচটির কথা। জোহানেসবার্গে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বাধীন ভারতের কাছে অল্পের জন্য শিরোপা হাতছাড়া করেছিলেন মিসবাহ-উল-হকরা। এরপর আরও তিনবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের মুখোমুখি হয়েছিল পাকিস্তান। তিনটি ম্যাচই হেসেখেলে জিতেছিল ভারত। 

তবে দিন পাল্টেছে। আগের পাঁচ ম্যাচ ধোনি খেললেও এবার আর ২২ গজে থাকছেন না ভারতের সফলতম অধিনায়ক। ধোনি মেন্টর হিসেবে থাকলেও চাপ সামলে ২২ গজে পারফর্ম করতে হবে তো ক্রিকেটারদেরকেই। 

মোহাম্মদ শামি, জসপ্রিত বুমরাহ, ভুবনেশ্বর কুমার, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবিন্দ্র জাদেজাদের নিয়ে গড়া বোলিং লাইন-আপকে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত বাবর আজম-মোহাম্মদ রিজওয়ানরা। পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপের অন্যতম ভরসা হিসেবে আছেন বাবর ও রিজওয়ান। 

রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলিদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে প্রস্তুত রয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি, হাসান আলি ও হারিস রউফরা। আর ইমাদ ওয়াসিমের তো আরব-আমিরাতে রেকর্ড দুর্দান্ত।

পাওয়ারপ্লে ও মিডল ওভারে বলের গতি কাজে লাগিয়ে সূর্যকুমার যাদব ও রিশাভ পান্তের মতো খেলোয়াড়দের আটকাতে বাঁ-হাতি স্পিনারের ওপর নির্ভর করবে পাকিস্তান। তাছাড়া শেষের দিকে ব্যাটিংয়ে নেমে ঝড় তুলতে ইমাদ তো আছেনই।

তাছাড়া মোহাম্মদ হাফিজ ও শোয়েব মালিকের মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়েরা ভারতের বিপক্ষে রান করতে মুখিয়ে আছেন। কাগজে কলমে যাই হোক না কেন, টি-টোয়েন্টি খেলাটা তো ভিন্ন কিছুই।

ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের ১২ সদস্যের দলবাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান, ফাখর জামান, মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, আসিফ আলি, ইমাদ ওয়াসিম, সাদাব খান (সহ-অধিনায়ক), হাসান আলি, হায়দার আলি, হারিস রউফ এবং শাহিন শাহ আফ্রিদি।


আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]