চ্যাম্পিয়নদের টানা দ্বিতীয় হার, জয়ে ফিরলো দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৩৫ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২১

টি-টোয়েন্টির বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এবারের আসরটা একদমই ভালো যাচ্ছে না। সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাত্র ৫৫ রানে অলআউট হয়ে ইংল্যান্ডের কাছে হারে গেইল-পোলার্ডদের দল।

এবারও ব্যাটিংটা সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেনি। দক্ষিণ আফ্রিকাকে মাত্র ১৪৪ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছিল ক্যারিবীয়রা। হেসেখেলেই সেই লক্ষ্য পাড়ি দিয়েছে প্রোটিয়া দল।

চ্যাম্পিয়নদের টানা দ্বিতীয় হার উপহার দিয়ে ম্যাচটি তারা জিতেছে ৮ উইকেট আর ১০ বল হাতে রেখে। চলতি বিশ্বকাপে এটি দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম জয়।

হাতে বেশি রান নেই। প্রথম ওভারেই প্রোটিয়া অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা রানআউট হলে কিছুটা আশার আলো ফুটে উঠেছিল ক্যারিবীয় শিবিরে। তবে সে আলো নিভতে সময় লাগেনি।

৩০ বলে ৪ বাউন্ডারি আর এক ছক্কায় ৩৯ রানের এক ইনিংস খেলে ফেরেন রিজা হেনড্রিকস। কিন্তু পরের দায়িত্বটুকু সুন্দরভাবে পালন করেছেন রসি ভ্যান ডার ডুসেন আর এইডেন মার্করাম।

তৃতীয় উইকেটে ৫৪ বলে ৮৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন তারা। ডুসেন দেখেশুনে খেললেও মার্করাম ছিলেন ভয়ংকর। ২৬ বলে ২ চার আর ৪ ছক্কায় ৫২ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ডুসেন ৫১ বলে অপরাজিত ছিলেন ৪৩ রানে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস থামে ৮ উইকেটে ১৪৩ রানে। এভিন লুইস খেলেছেন ৩৫ বলে ৬ ছয়ের মারে ৫৬ রানের ইনিংস। কিন্তু বাকিরা কেউ সেভাবে অবদান রাখতে পারেননি।

অথচ ব্যাট করতে নেমে একের পর এক ছক্কা হাঁকিয়ে মাত্র ৩২ বলে ফিফটি করেন এভিন লুইস। কিন্তু ১০ ওভার শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ দেখা যায় বিনা উইকেটে মাত্র ৬৫ রান। এর পেছনে লুইসের কোনো দায় নেই। পুরোটাই নিতে হবে তার উদ্বোধনী জুটির সঙ্গী লেন্ডল সিমন্সকে।

আজ যেন টেস্ট মেজাজ নিয়েই ব্যাট করতে নেমেছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ ডানহাতি ওপেনার। ইনিংসের ১৩.২ ওভার পর্যন্ত উইকেটে থেকেও কোনো বাউন্ডারিই হাঁকাতে পারেননি তিনি।

দলের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরার আগে ৩৫ বল খেলে মাত্র ১৬ রান করতে সক্ষম হন সিমন্স। তিনি আউট হওয়ার আগেই সাজঘরের পথ ধরেন ৩৫ বলে ৩ চার ও ৬ ছয়ের মারে ৫৬ রান করা লুইস এবং তিন নম্বরে নামা নিকোলাস পুরান (৭ বলে ১২)।

এরপর বেশি কিছু করতে পারেননি ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেলরাও। একটি ছক্কা হাঁকালেও ১২ বলে মাত্র ১২ রান করেন গেইল। রাসেলের ব্যাট থেকে আসে ৪ বলে ৫ রান। অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড ২০ বলে ২৬ ও অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভোর ৫ বলে ৮ রানের সুবাদে ১৪৩ পর্যন্ত যায় দলের সংগ্রহ।

দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে বল হাতে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নিয়েছেন ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস। বাঁহাতি স্পিনার কেশভ মহারাজের শিকার ২ উইকেট। উইকেট মাত্র ১টি পেলেও কিপটে বোলিংয়ে ৪ ওভারে ১৪ রানের বেশি দেননি এনরিচ নর্টজে।

এমএমআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]