অপমানের জবাব মাঠেই দিলো পাকিস্তান

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:০৯ এএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেয়ার পর খুবই বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়ে গিয়েছিলেন রমিজ রাজা। পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলার জন্য দেশটিতে সফরেও গিয়েছে নিউজিল্যান্ড। খেলা শুরু হবে। সবই প্রস্তুত। এমনই সময়ই বেঁকে বসলো কিউইরা। তাদের কাছে নিরাপত্তা নিয়ে হুমকি এসেছে। সুতরাং, আর কোনো খেলা নয়, যত দ্রুত সম্ভব পাকিস্তান ছেড়ে যাবেন তারা।

নিউজিল্যান্ডের এই যে বেঁকে বসা, একে আর সোজা করা সম্ভবই হলো না। পিসিবি চেয়ারম্যান চেষ্টা করলেন, নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানের সঙ্গে কথা বললেন। কাজ হলো না। শেষমেষ পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ফোন করলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডানকে। তাতেও কাজ হলো না।

তাদের কাছে নিরাপত্তা নিয়ে হুমকি এসেছে। সুতরাং, কোনো অনুরোধ, উপরোধেই কাজ হলো না। সিরিজ পুরোপুরি বাতিল করে দিয়ে পাকিস্তান ছেড়ে গেলো নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল।

Pakistan

এ নিয়ে তুমুল তোলপাড় হরো। পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা সরাসরি বলে দিলেন, পাকিস্তানের ক্রিকেটকে অপমান করা হয়েছে, এ দেশের ক্রিকেটকে ধ্বংস করা হয়েছে। এটা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা প্রথমে হুমকি দিয়েছিলেন, আইসিসিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যবস্থা নেবেন।

কিন্তু যখন দেখলেন তা সম্ভব নয়, তখন তিনি ঘোষণা দিলেন- মাঠেই এর প্রতিশোধ নেয়া হবে। একই সঙ্গে পাকিস্তানের দৃঢ় বিশ্বাস ছিল, নিউজিল্যান্ডের এই সফর বাতিল করার পেছনে সরাসরি হাত ছিল ভারতের। পাকিস্তানের এক মন্ত্রী সরাসরি এই দাবি করেছিলেন। ভারতের প্ররোচণা এবং ষড়যন্ত্রে নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করে দেয়। যার দেখাদেখি, পাকিস্তান সফরে আসতে অস্বীকৃতি জানায় ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলও।

Pakistan

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আগে তাই পাকিস্তানের সামনে দুটি বিশাল চ্যালেঞ্জ ছিল। এই দুটি চ্যালেঞ্জ প্রতিশোধ গ্রহণের। ভারত এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠেই প্রতিশোধ নেয়ার যে প্রকাশ্য ঘোষণা দিয়েছিলেন পিসিবি চেয়ারম্যান, সেটা বাস্তবায়নের চ্যালেঞ্জ।

২৪ অক্টোবর প্রথম চ্যালেঞ্জে অবিশ্বাস্যভাবে জিতে নিয়েছিলেন বাবর আজমরা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথমবার হারানোই নয় শুধু, ১০ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে লজ্জার মালা পরিয়েছেন তারা। সে সঙ্গে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, মাঠের বাইরে যতই ষড়যন্ত্র করো, লাভ নেই। মাঠের খেলাই আসল।

Shoib Malik

বাকি ছিল নিউজিল্যান্ড। পাকিস্তানকে যে অপমান দিয়ে ফিরে এসেছিল তারা, তার প্রতিশোধ নেয়ার মোক্ষম একটি মঞ্চ ছিল আজ শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম। এই ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে যদি হেরে যেতেন বাবর আজমরা, তাহলে তা হতো তাদের সেই কাটা গায়ে নুনের ছিটার মতো।

কিন্তু পাকিস্তান প্রমাণ করে দেখিয়ে দিয়েছে, সেই ক্ষত শুকিয়ে শক্ত হয়ে গেছে। সেখানে নুনের ছিটা দেয়া সম্ভব নয়। বরং, উল্টো নুনেরজ ঝাপটা নিজেদের চোখে-মুখেই লাগবে। শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নিউজিল্যান্ডকে ৫ উইকেটের ব্যবধানে হারিয়ে সেই অপমানের দারুণ প্রতিশোধ গ্রহণ করলেন বাবর-মালিক-আসিফ আলি আর হারিস রউফরা।

নিউজিল্যান্ডের করা ১৩৪ রানের জবাব দিতে নেমে কিছুটা ব্যাকফুটে ছিল পাকিস্তান। কিন্তু তাদের ব্যাটিং গভিরতা যে অনেক বেশি তা প্রমাণ হলো সাত নম্বরেও দৃঢ়তার লড়াই করে যাওয়া। ৫টি উইকেট পড়ে গেলে আগে যেখানে পাকিস্তান প্যানিকড হয়ে যেতো, সেখানে আসিফ আলি আর শোয়েব মালিক মিলে দৃঢ়তা দেখিয়ে ৮ বল হাতে রেখেই পাকিস্তানকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন।

Asif Ali

একই সঙ্গে বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান রমিজ রাজার মানটাও রক্ষা করলেন বাবর আজমরা। তিনি যে ঘোষণা দিয়েছিলেন,‘মাঠেই অপমানের বদলা নেবেন!’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]