অবশেষে ক্ষমা চাইলেন ডি কক

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:২১ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০২১

গত শনিবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশন। সেই ম্যাচে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’র প্রতি সতীর্থরা সমর্থন জানালেও, কুইন্টন ডি কক তা করেননি।

পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচের আগে হাঁটু গেড়ে বসা বাধ্যতামূলক করে দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই ম্যাচটি ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে খেলেননি ডি কক। স্বাভাবিকভাবেই তা অনেক সমালোচনার জন্ম দেয়।

রীতিমতো অপরাধী হিসেবেই দাঁড় করানো হয় ডি কককে। এবার সেই ‘অপরাধের’ জন্য ক্ষমা চেয়েছেন প্রোটিয়া উইকেটরক্ষক ব্যাটার। ফলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পরের ম্যাচে খেলতে আর বাধা থাকলো না তার।

বৃহস্পতিবার সকালে এক বিবৃতি দিয়েছেন ডি কক। যেখানে এই বাঁহাতি ব্যাটারের মন্তব্য, ‘বর্ণবাদের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর গুরুত্ব আমি বুঝতে পেরেছি। খেলোয়াড় হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করা আমার দায়িত্ব। হাঁটু গেড়ে বসার শিক্ষা যদি সবাইকে বুঝিয়ে দিতে পারি, তাহলে সেটা করে আমার খুব ভালো লাগবে।’

সতীর্থদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বাঁহাতি ব্যাটারের বক্তব্য, ‘প্রত্যেককে ধন্যবাদ আমার পাশে থাকার জন্য। বিশেষত টেম্বা বাভুমা; ভক্তরা হয়তো তার সম্পর্কে ভালোমতো জানে না। সে অধিনায়ক হিসেবে আসলেই অন্যরকম। দক্ষিণ আফ্রিকা দলের খেলার মতো ভালো আমার আর কিছু লাগতে পারে না।’

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ) ডি ককের এই ক্ষমা চাওয়াকে স্বাগত জানিয়েছে। সিএসএকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘বর্ণবাদের বিরুদ্ধে দাঁড়ানো নৈতিক ব্যাপার, রাজনৈতিক নয়। বোর্ড শেষ পর্যন্ত ব্যাপারটা বুঝতে পেরেছে। খেলোয়াড়দের প্রতি বোর্ডের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে।’

এসএএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]