পাকিস্তানের বিপক্ষে আশাতীত ভালো খেলেছে বাংলাদেশ: ফাহিম

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:১৯ পিএম, ২৪ নভেম্বর ২০২১

টেস্ট সিরিজ দরজায় কড়া নাড়ছে। এর একদিন পর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্টে বাবর আজমের দলের মুখোমুখি হবে মুমিনুল হকের দল।

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে খুব প্রাসঙ্গিকভাবেই উঠে আসছে টি টোয়েন্টি সিরিজের পারফরমেন্স ও ফল। টি-টোয়েন্টি সিরিজে কেমন খেললো বাংলাদেশ? তা নিয়ে নানা মুনির নানা মত।

বেশির ভাগেরই মত ঘরের মাঠে চেনা জানা আর শেরে বাংলার সেই স্লথ গতি, নিচু বাউন্সি পিচে ঠিক যতটা ভাল খেলা প্রত্যাশিত ছিল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল তা পারেনি। তবে শুনে অবাক হতে পারেন, দেশ বরেণ্য ক্রিকেট প্রশিক্ষক নাজমুল আবেদিন ফাহিম মনে করেন, বাংলাদেশ আশাতীত ভাল খেলেছে এবং তার মূল্যায়ন হলো উইকেটের কারণেই প্রতিদ্বন্দ্বীতা হয়েছে বেশি।
খালি চোখে যাই মনে হোক না কেন পাকিস্তানের সিরিজ জিততে কষ্ট হয়েছে।

জাগো নিউজের সাথে একান্ত আলাপে টি-টোয়েন্টি সিরিজে টাইগারদের পারফরমেন্সের মূল্যায়ন করতে গিয়ে নামী ক্রিকেট বিশ্লেষক ফাহিম বলেন, ‘আমার তো মনে হয় যেমন ভেবেছিলাম তার চেয়ে ভাল খেলেছে। প্রতিদ্বন্দ্বীতা হয়েছে। পাকিস্তানীরা কিন্তু খুব সহজে জিতেনি। প্রত্যেকটা ম্যাচে লড়াই হয়েছে। দুটি ম্যাচে এমনও হয়েছিল যে পাকিস্তান হেরেও যেতে পারতো। তাদের হারের উপক্রমও হয়েছিল। ওই সেন্সে বলবো কমপিটিশন হয়েছে।’

ফাহিম বোঝানোর চেষ্টা করেন এখানেও উইকেটের বড় ভূমিকা ছিল। মানে তার ব্যাখ্যা হলো উইকেটের কারণেই প্রতিদ্বন্দ্বীতা হয়েছে।

পক্ষে যুক্তি দিয়ে ফাহিম বলে ওঠেন, ‘আসলে আমরা শেরে বাংলার কন্ডিশনে খেলি সারা বছর, তাই ওই মাঠের উইকেট ও কন্ডিশন সম্পর্কে আমাদের ধারণা খুব পরিষ্কার। সে কারণেই পাকিস্তানের সাথে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বীতা গড়ে তুলতে পেরেছি।’

পাকিস্তান দলটি এ মুহূর্তে টি-টোয়েন্টি অন্যতম সেরা দল; কিন্তু দলটির বেশিরভাগ ক্রিকেটারই ঠিক শেরে বাংলার এই উইকেটে খেলতে অভ্যস্ত নয়। আর তাই তাদের ১১৫-১২০ তাড়া করে জিততেও খুব কষ্ট হয়েছে। তাতে বোঝা যায় যে উইকেট কতটা ডিফিকাল্ট ছিল।’

এআরবি/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]