আরও একবার চট্টগ্রামে মুশফিকের নড়বড়ে নব্বই

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৪ এএম, ২৭ নভেম্বর ২০২১

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামকে নিজের জন্য অপয়া ভাবতেই পারেন মুশফিকুর রহিম। টেস্ট ক্যারিয়ারে চারবার নব্বইয়ের ঘরে আউট হয়েছেন তিনি। এর মধ্যে তিনবারই চট্টগ্রামের সাগরিকার এই স্টেডিয়ামে। যার সবশেষটি হলো আজ (শনিবার)।

ইনিংসের ৯৩তম ওভারে শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে আউটসাইড এজ থেকে পাওয়া বাউন্ডারিতে ৮৭ থেকে ৯১ রানে পৌঁছে গিয়েছিলেন মুশফিক। এরপর একের পর এক ডট খেলে টানা পাঁচ ওভারে আর রান করতে পারেননি তিনি। সেই ৯১ রানেই ১৪টি বল খেলেন মুশফিক।

দ্বিতীয় দিনে ৯৯তম ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে আসেন ফাহিম আশরাফ। তার করা পঞ্চম ডেলিভারিটি ছিল হালকা রাইজিং ইনসুইঙ্গার। যেটি ডিফেন্ড করতে গিয়ে লাগে মুশফিকের ব্যাটের বাইরের কানায়। বোলার-ফিল্ডারদের আবেদনে আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার।

সঙ্গে সঙ্গে রিভিউ নেন মুশফিক। টিভি রিপ্লে'তে দেখা যায় বল যখন মুশফিকের ব্যাট অতিক্রম করছিল তখন তার ব্যাট প্যাডের সঙ্গেও লেগে ছিল। কিন্তু আল্ট্রাএজে স্পাইক দেখা যাওয়ায় মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই বহাল রাখেন থার্ড আম্পায়ার গাজী সোহেল।

ফলে ৯১ রানেই থেমে যায় মুশফিকের ২২৫ বলে ইনিংস। ক্যারিয়ারে এর আগে ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৯৫, ২০১৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৯৩ ও ২০১৮ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৯২ রান করে আউট হয়েছিলেন মুশফিক। এর মধ্যে ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল চট্টগ্রামেই।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১০০ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ২৭৭ রান। এখন খেলছেন মেহেদি হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। এর আগে লিটন দাস ১১৪ ও অভিষিক্ত ইয়াসির আলি রাব্বি আউট হয়েছেন ৪ রান করে।

এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]