জয়ের জন্য ২৮৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫৬ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১

কানপুরের গ্রিনপার্ক পেসারদের জন্য নয়, বরং স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে। অক্ষর প্যাটেল যেভাবে প্রথম ইনিংসে লাটিমের মত বল ঘুরিয়েছেন, তাতে দ্বিতীয় ইনিংসেও স্পিনাররা ছড়ি ঘোরাবে- এটা বলাই বাহুল্য। যদিও নিউজিল্যান্ডের স্পিনার নয়, পেসাররাই আগুন ঝরিয়েছেন এবং সাফল্য তুলে নিয়েছেন।

স্পিন স্বর্গরাজ্যে সোমবার হবে ম্যাচ নির্ধারণের তুমুল লড়াই। কারণ, জয়ের জন্য ২৮৪ রানের লক্ষ্য পেয়েছে নিউজিল্যান্ড। যদিও ইনিংসের শুরুতেই ওপেনার উইল ইয়ংয়ের উইকেট হারিয়েছে কিউইরা। দিন শেষ করেছে কেবল ৪ রান নিয়ে। হারিয়ে ফেলেছে একটি উইকেট। উইকেটটি নিয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

সোমবার ম্যাচের শেষদিন। উইকেট যেভাবে ভেঙে রয়েছে, তাতে অশ্বিন-অক্ষররা যে দুর্বোধ্য হয়ে উঠবেন সফরকারী ব্যাটারদের জন্য- তা বলাই বাহুল্য। শেষদিন নিউজিল্যান্ডের প্রয়োজন ২৮০ রান। হাতে আছে ৯ উইকেট। জয়ের জন্য ভারতের দরকার এই ৯টি উইকেট।

আজ চতুর্থ দিন সকালে ১ উইকেটে ১৪ রান নিয়ে ব্যাট করতে নামে ভারত। আগরওয়াল ৪ এবং চেতেশ্বর পুজারা উইকেটে ছিলেন ৯ রানে। তবে টিম সাউদি আর জেমিসনের আগুনে বোলিংয়ের সামনে বেশিক্ষণ টিকতে পারেনি তারা। মায়াঙ্ক আগরওয়াল আউট হন ১৭ রানে এবং চেতেশ্বর পুজারা আউট হন ২২ রান করে।

অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে আউট হন ৪ রান করে। অভিষিক্ত স্রেয়াশ আয়ারই ব্যাট হাতে প্রতিরোধ গড়েন কিউই বোলারদের সামনে। প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ৬৫ রান। রবিন্দ্র জাদেজা আউট হন কোনো রান না করেই। রবিচন্দ্রণ অশ্বিন করেন ৩২ রান।

তবে অষ্টম উইকেট জুটিতে ঋদ্ধিমান সাহা এবং অক্ষর প্যাটেল মিলে অসাধারণ ব্যাটিং করেন। ১৬৭ রানে সপ্তম উইকেট পড়ার পর এই দু’জন মিলে ৬৭ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে তোলেন। ঋদ্ধিমান সাহা করেন ৬১ রান এবং অক্ষর প্যাটেল করেন ২৮ রান। এরপরই ইনিংস ঘোষণা করে ভারত অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে।

আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]