স্মিথ, ওয়ার্নারের সঙ্গে ‘দ্বৈত আচরণ’ কেন?

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০২ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১

৮ ডিসেম্বর গ্যাবায় অ্যাশেজ দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে অস্ট্রেলিয়ার ৪৭তম টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করবেন প্যাট কামিন্স। স্টিভেন স্মিথ থাকবেন সহ-অধিনায়ক। তবে স্মিথকে সহ-অধিনায়ক ঘোষণা করায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) ওপর ভীষণ ক্ষিপ্ত হয়েছেন ইয়ান চ্যাপেল।

২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা ঘটেছিল। যেখানে জড়িত ছিলেন তৎকালীন অধিনায়ক স্মিথ, সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার এবং ব্যাটার ক্যামেরন ব্যানক্রফট।

স্মিথ, ওয়ার্নার ১ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ২০১৯ থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। ওয়ার্নারকে বাদ দিয়ে স্মিথকে সহ-অধিনায়ক করায় সিএ'র সিদ্ধান্তে খুশি হতে পারেননি ইয়ান চ্যাপেল।

টুজিবির ওয়াইড ওয়ার্ল্ড অব স্পোর্টস রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চ্যাপেল বলেছেন, ‘প্রতারণা তো প্রতারণাই। এটাকে ছোট-বড় আকারে মাপা যায় না। তাহলে স্মিথের অপরাধকে খাটো করে দেখা হলো কেন? স্মিথের দু’বছরের অধিনায়কত্বের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলে ওয়ার্নারেরও হয়েছে। আর পুরোপুরি নিষিদ্ধ হলে দু’জনেই হবে!'

চ্যাপেলের দৃষ্টিতে স্মিথ হচ্ছেন ‘বড় প্রতারক'। তিন বছর আগের ঘটনা প্রসঙ্গে অসি কিংবদন্তি ব্যাটার আরও যোগ করছেন, ‘যখন ঘটনা ঘটল, তখন সে (স্মিথ) সবকিছু না জানার ভান করে। দলে কি সব ঘটনা ঘটছে সবকিছু একজন অধিনায়কের নখদর্পনে থাকা উচিত।’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]