লেন্সের বিপক্ষে কষ্টার্জিত ড্র মেসির পিএসজির

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৬ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১

মেসি ছিলেন, ডি মারিয়া ছিলেন, মাইকুনহোসও ছিলেন। কিলিয়ান এমবাপেকে পরে মাঠে নামানো হয়েছিল। কিন্তু কাংখিত জয় তো তুলেই নিতে পারেনি প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি); উল্টো হেরে যেতে বসেছিল। শেষ মুহূর্তে, ইনজুরি সময়ে গোল করে ম্যাচটাকে ১-১ ব্যবধানে ড্র করে একটি পয়েন্ট এনে দিয়েছেন জর্জিনিও উইজনালডাম।

ম্যাচটা ছিল লেন্সের বিপক্ষে, তাদেরই মাঠে। শুরু থেকেই একাদশে ছিলেন মেসি। ম্যাচেও ছিল তার চাপ। কারণ, আধিপত্য বিস্তার করেই খেলেছিল পিএসজি। পরিসংখ্যানই বলে দেয়। ৬৪ ভাগ বল দখলে ছিল পিএসজির এবং ৩৬ ভাগ দখলে ছিল লেন্সের।

পয়েন্ট টেবিলেও খুব বেশি হেরফের হলো না। ১৭ ম্যাচ শেষে পিএসজির পয়েন্ট ৪২। ১৬ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মার্শেই। লেন্স রয়েছে ১৭ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে ৫ম স্থানে।

লেন্সেরই বরং দুর্ভাগ্য এই ম্যাচে। জিততে পারেনি। কারণ, শেষ মুহূর্তে গোল হজম করতে হয়েছে। নিজেদের মাঠে ম্যাচের ৬২তম মিনিটে সেকো ফোফানার গোলে এগিয়ে যায় লেন্স। খেল শেষ হবে হবে করছিল, চলছিল অতিরিক্ত সময়ের খেলা। এমন সময়ই, ৯০+২ মিনিটে গোল করে বসেন জর্জিনিও উইজনালডাম।

কিলিয়ান এমবাপেকে সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রেখেই সেরা একাদশ সাজান মউরিসিও পোচেত্তিনো। ১৯ মিনিটেই দুর্দান্ত এক গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি। কিন্তু তার শট পোস্টে লেগে ফিরে আসে। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার খানিক আগে সুযোগ পেয়েছিল লেন্স। জোনাথন ক্লজ এবং আর্নাউড কালিমিউয়েন্দো গোলের সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]