ছুটি মঞ্জুর করে পাপন বললেন ‘সাকিবের বিষয় আলাদা’

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫৯ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

অডিও শুনুন

বুধবার শেষ হবে পাকিস্তানের বিপক্ষে চলতি টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ। এরপর দিনগত রাতেই দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য প্রায় ৪০ দিনের সফরে নিউজিল্যান্ডের বিমানে উঠবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এরই মধ্যে ঘোষণা করা হয়েছে সফরের স্কোয়াড।

শনিবার ঘোষিত ১৮ জনের দলে রাখা হয়েছিল সাকিব আল হাসানকেও। কিন্তু দল ঘোষণার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ছুটি চেয়ে বোর্ডে আনুষ্ঠানিক চিঠি দিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তবে এর আগেই মৌখিকভাবে ছুটির কথা বলেছিলেন তিনি।

সোমবার সাকিবের সেই ছুটি মঞ্জুরের কথাও আনুষ্ঠানিকভাবে জানালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে সংবাদমাধ্যমকে সাকিবকে ছুটি দেওয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন তিনি।

তবে পুরো বিষয়টি নিয়ে জলঘোলা হওয়ায় খানিক অসন্তোষও দেখা গেছে বিসিবি সভাপতির কণ্ঠে। কোনো খেলোয়াড় ছুটি চাইলে তাতে বোর্ডের আপত্তি নেই জানালেও, সেই ছুটির বিষয়টি আগে জানাতে বলেছেন পাপন। যাতে বিকল্প খেলোয়াড় খুঁজতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট।

পাপনের ভাষ্য, ‘আগে থেকেই বলে আসছি, কেউ যদি ছুটি চায়, খেলতে না চায়, বিশ্রাম চায়, বিরতি চায়- আমাদের কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে হতে হবে। আমরা বিষয়টি আগাম জানতে চাই। হঠাৎ করে জানলে আমাদের জন্য কঠিন।’

এসময় নতুন বছর ছুটির বিষয়ে নতুন নিয়ম প্রবর্তনের ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী জানুয়ারি থেকে আমরা যে জিনিসটা করছি, সেটা হচ্ছে কারও যদি বিশ্রাম-বিরতি লাগে আমাদের আগে থেকে জানাতে হবে। তাহলে আমরা অন্য খেলোয়াড়কে প্রস্তুত করতে পারবো।’

টানা খেলার ধকল কিংবা জৈব সুরক্ষা বলয়ের মানসিক ক্লান্তির কারণে বিশ্রাম নিয়ে খেলার উদাহরণ অনেক। এ বিষয়টিও ইতিবাচকভাবে দেখছেন পাপন। তবে সাকিব বিশ্রাম চাননি বরং পারিবারিক কারণে বিরতি চেয়েছেন; তাই পাপনের মতে সাকিবের বিষয়টি ভিন্ন।

তিনি বলেছেন, ‘যার বিশ্রাম দরকার তাকে বিশ্রাম দিতেই হবে; গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হোক বা না হোক। সাকিবের বিষয়টা ভিন্ন। ও তো আর ইনজুরিতে না, বিশ্রামও চায়নি। ও বিরতি চেয়েছে, পারিবারিক কারণে ছুটি চেয়েছে, বিরতি চেয়েছে। কাজেই জিনিসটা কিন্তু এক নয়। এটা ইনজুরিও না, বিশ্রামও না।’

এসময় সাকিবের ছুটি ও স্কোয়াডে রাখা নিয়ে জল ঘোলা হওয়ার বিষয়ে পাপন বলেন, ‘অনানুষ্ঠানিকভাবে আমরা জানতাম। এতোদিন ধরে সবকিছু অনানুষ্ঠানিকভাবেই হয়ে আসছে। যার কারণে অনেক দ্বিধাদ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। এটি যেন না হয়, তাই জোর দিয়ে বলা হচ্ছে তারা যেন আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]