উইলিয়ামসের সেঞ্চুরিও জেতাতে পারলো না জিম্বাবুয়েকে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৪ এএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

অসাধারণ এক সেঞ্চুরি উপহার দিলেন জিম্বাবুয়ের ব্যাটার শন উইলিয়ামস। দুর্দান্ত ব্যাটিং করলেন রেগিস চাকাভাও। তাদের ব্যাটে ভর করে বোর্ডে ২৯৬ রানের বিশাল একটি স্কোরও তুলেছিল জিম্বাবুয়ে। তবুও জিততে পারলো না তারা। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ৫ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নিয়েছে। হাতে বাকি ছিল তখনও ৯টি বল।

লঙ্কানদের হয়ে কেউ সেঞ্চুরি করতে পারেনি। তবে তাদের তিনটি সত্তোরোর্ধ্ব ইনিংস সহজ এনে দিয়েছে লঙ্কানদের। পাথুম নিশাঙ্কা, দিনেশ চান্ডিমাল এবং চারিথ আশালঙ্কার ব্যাটে ভর করেই ৫উইকেটের জয় তুলে নেয় শ্রীলঙ্কা।

পাল্লেকেলেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে আজ মাঠে নেমেছে শ্রীলঙ্কা। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় জিম্বাবুয়ে। ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতেই ঝড় তুলতে শুরু করে জিম্বাবুইয়ানরা।

টি কাইতানো এবং রেগিস চাকাভা মিলে গড়ে তোলেন ৮০ রানের দারুণ এক জুটি। ৫০ বলে ৪২ রান করে কাইতানো আউট হলে ভাঙ্গে উদ্বোধনী জুটি। অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন ৯ রান করে ফিরে যান সাজঘরে। তবে চাকাভার সঙ্গে তিনি ৩০ রানের জুটি গড়েন।

এরপর জুটি বাধেন চাকাভা এবং উইলিয়ামস। এ দু’জন মিলে ৫০ রানের জুটি গড়ার পর আউট হন চাকাভা। ৮১ বল খেলে ৭২ রান করেন তিনি ৭টি বাউন্ডারির সাহায্যে। এরপর ওয়েসলি মাদভিরে করেন ২০ রান, সিকান্দার রাজা আউট হন ১৮ রান করে, রায়ান বার্ল করেন ৪ রান। এপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়তে থাকে।

৮ম উইকেট হিসেবে আউট হন শন উইলিয়ামস ৮৭ বলে সেঞ্চুরি পূরণ করে আউট হন তিনি। ৯টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কার মার মারেন ২টি। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে ২৯৬ রান করেন তিনি।

জবাব দিতে নেমে শ্রীলঙ্কাও শুরু থেকে ছিল মারমুখি। ৪০ রানের জুটি গড়ে বিচ্ছিন্ন হন পাথুম নিশাঙ্কা আর কুশল মেন্ডিস। মেন্ডিস এ সময় আউট হন ২৬ রান করে। কামিন্দু মেন্ডিস আউট হন ১৭ রান করে। এরপর পাথুম নিশঙ্কা আর দিনেশ চান্ডিমাল গড়েন জুটি। ৬৮ রানের জুটি গড়েন তারা। এ সময় আউট হন নিশাঙ্কা। ৭১ বলে তিনি আউট হন ৭৫ রান করে। ১০টি বাউন্ডারির মার ছিল তার ব্যাটে।

এরপর দিনেশ চান্ডিমাল আর চারিথ আশালঙ্কা মিলে জুটি গড়ে শ্রীলঙ্কাকে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন। এ দু’জন মিলে গড়েন ১২৯ রানের জুটি। ২৭৬ রানের মাথায় আউট হন চান্ডিমাল। তিনি ৯১ বলে ৭৫ রান করে আউট হলেও দুটি গুরুত্বপূর্ণ জুটি উপহার দেন। আশালঙ্কা আউট হন ৬৮ বলে ৭১ রান করে।

শেষ দিকে দাসুন শানাকা ১০ এবং চামিকা করুনারত্নে ৫ রান করে অপরাজিত থেকে শ্রীলঙ্কাকে জয় উপহার দিয়ে মাঠ ছাড়েন। ৪৮.৩ ওভারে শ্রীলঙ্কার স্কোর হয়ে যায় ৫ উইকেটে ৩০০।

আইএইচএস/এআরএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]