‘ফেবারিট’ কুমিল্লাকে চমকে দিতে চান সিলেট কোচ ডিলন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৩৪ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২২

অনেকটাই ফরচুন বরিশাল আর চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ম্যাচের আগের অবস্থা। দুই হাই প্রোফাইল ফরেন রিক্রুট ক্রিস গেইল আর মুজিবুর রহমান এসে না পৌঁছালেও কাগজে-কলমে ফেবারিট হয়েই মাঠে নেমেছিল সাকিবের বরিশাল; কিন্তু অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের পরও শেষ পর্যন্ত পারেনি চট্টগ্রাম।

মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে প্রায় একই অবস্থা ইমরুল কায়েসের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের। দলের দুই নামী তারকা সুনিল নারিন আর মঈন আলী এখনো এসে পৌঁছাননি। তাদের ছাড়াই শনিবার দুপুরে (সাড়ে ১২ টায়) সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে ইমরুলে দল।

প্রথম ম্যাচের আগে কুমিল্লা শিবিরে বিদেশি কোটায় আছেন দুই দক্ষিণ আফ্রিকান ফাফ ডু প্লেসি, ক্যামেরন ডেলপোর্ট এবং ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ফাস্ট বোলার ওশানে থমাস। সঙ্গে একঝাঁক স্থানীয় তরুণ ও প্রতিভাবান ক্রিকেটার লিটন দাস, মুমিনুল হক, আরিফুল, নাহিদুল, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, শহিদুল, পারভেজ ইমন ও মাহমুদুল হাসান জয়, আবু হায়দার রনি, তানভির ইসলাম।

এর মধ্যে লিটন দাস কাল শনিবার খেলছেন না। নিউজিল্যান্ড সফরের পর টিম ম্যানেজমেন্টই তাকে বিশ্রাম দিয়েছে। বিপিএলের প্রথম দুই ম্যাচ লিটন বাইরে থাকবেন। তারপরও কুমিল্লার পাল্লা ভারী।

অন্যদিকে সিলেটে সে অর্থে তেমন কোন বড় তারকা নেই। দলটির অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেনও বলে রেখেছেন, ‘আমাদের কোন বড় ও নামী তারকা নেই।’ তবে নিজেদের সেরাটা খেলে মাঠে কিছু করার দৃঢ় প্রত্যয় ছিল মোসাদ্দেকের।

প্রথম ম্যাচের আগে সিলেটের ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান কোচ মারভিন ডিলনও শোনালেন আশার বাণী। জানিয়ে দিলেন, বিপিএলে চমক দেখাবে সিলেট। বড় দলগুলোকে হারানোর হুমকিও দিয়েছেন এ ক্যারিবিয়ান কোচ।

ওদিকে সিলেট লাইনআপে অধিনায়ক মোসাদ্দেকের সঙ্গে ফর্মে থাকা মোহাম্মদ মিঠুন, দ্রুত গতির বোলার তাসকিন, এনামুল হক বিজয়, নাজমুল ইসলাম অপু, সোহাগ গাজীও আছেন লাইনআপে। অলরাউন্ডার মুক্তার আলী আর নাদিফ চৌধুরীও এবার সিলেটে। সঙ্গে তিন বিদেশী রবি বোপারা, কেসরিক উইলিয়ামস ও কলিন ইনগ্রাম।

এরকম এক লাইনআপ নিয়ে হট ফেবারিট কুমিল্লার বিপক্ষে মোটেই চিন্তিত না সিলেট কোচ মারভান ডিলন। বরং শ্রেয়তর প্রতিপক্ষর বিপক্ষে নিজের দলকে নিয়ে আশাবাদী মারভিন ডিলন।

আজ শুক্রবার প্র্যাকটিসে কথা বলতে গিয়ে নিজের দলকে অনভিজ্ঞ বলে মানতে নারাজ সিলেট কোচ ডিলন। তার কথা, আমাদের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার আছে। প্রতিপক্ষ কুমিল্লাকে আমরা সমীহ করলেও নিজের দলকে কোনোভাবেই পিছিয়ে রাখতে চাই না। তাদের ভেতরে সেই বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। ক্রিকেট মাঠের খেলা। এই দলটিকে নিয়ে সবাইকে চমকে দিতে চাই। আন্ডারডগ। আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি আমাদের বিপক্ষে কেউই সহজে জিততে পারবে না।’

সিলেটের স্থানীয় খেলোয়াড়দের আত্মনিবেদন দেখে মুগ্ধ এ ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান। তার কথা, ‘ছেলেরা শিখতে মুখিয়ে থাকে। টুর্নামেন্টে তাদের প্রস্তুতি নিয়ে খুশি। আমি তাদের খেলা দেখছি এবং বোঝার চেষ্টা করছি। এরপর আমার দর্শন তাদের বোঝানোর চেষ্টা করবো। কোচ হিসেবে আমি বেশ আত্মবিশ্বাসী, আমরা অনেককেই চমক দেখাব।’

এআরবি/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]