টপঅর্ডারে কেউ রান না করলে জেতা কঠিন: সুজন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৪৩ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২২

সব দিন সমান যায় না। প্রথম ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে ১২৬ রানের ছোট টার্গেট ছিল। যা তাড়া করতে নেমে ২৮ রানে ২ উইকেট হারিয়েও শেষ পর্যন্ত ৪ উইকেটের জয় পেয়েছিল সাকিবের ফরচুন বরিশাল।

ভাবছেন টার্গেট ছোট, তাই শুরুর ধাক্কা সামলেও ঠিকই জয়ের বন্দরে পৌঁছে গিয়েছিল বরিশাল। আসলে তা নয়। সে ম্যাচে ৩৯ রানের এক ইনিংস খেলেছিলেন ওপেনার সৈকত আলি। অনেকটা সময় একদিক আগলেও ছিলেন। তাই শেষ দিকে জিয়াউর রহমান ও ডোয়াইন ব্রাভোদের হাত খুলে খেলা সহজ হয়।

আজও (সোমবার) আগে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতে চাপে পড়ে যায় বরিশাল। কিন্তু এদিন আর শেষ রক্ষা হয়নি। কারণ সোমবার দুপুরে সাকিব বাহিনীর ওপরের দিকে একজনও রান পাননি। সৈকত ১৫, নাজমুল শান্ত ৫, সাকিব ২৩ ও তৌহিদ হৃদয় ০- প্রথম চারজন ব্যর্থতার মিছিলে অংশ নিলে আর সামনে আগানো সম্ভব হয়নি।

ফলে ১২৯ রানে থেমে গেছে বরিশাল। এ রান নিয়ে আর জেতাও সম্ভব হয়নি। ৪ উইকেটের পরাজয়ই সঙ্গী থেকেছে। কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন টপ অর্ডারের ব্যর্থতাকেই বড় করে দেখছেন। সোমবার ম্যাচ শেষে কথা বলতে গিয়ে সুজনের সোজা সাপটা কথা, ‘টপঅর্ডারে কেউ রান না করলে কাজটা কঠিন হয়ে যায়।’

আজকের ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে তার দলের প্রয়োগে সমস্যা ছিল। তার ব্যাখ্যা, ‘(প্রতিপক্ষ) বোলিং ভালো তো করবেই, তবে এতো ভালো বোলিং হয়নি। আমরা উইকেট দিয়ে এসেছি। আরেকটু দায়িত্ব নিয়ে ব্যাটিং করা উচিৎ ছিল টপঅর্ডারের।’

তবে টপঅর্ডারের এই রান করতে না পারকে আবার খুব বড় করে দেখতে নারাজ সুজন, ‘হয়নি আসলে। এমন হতেই পারে। ওরাও ভালো দল। ওদের জন্য দুই ম্যাচ হারার পর জেতা খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আমি মনে করি আমরা আরও ভালো খেলার ক্ষমতা রাখি।’

নিজ দলের ব্যাটিংয়ে অসন্তুষ্ট না হলেও তুষ্ট নন বরিশাল কোচ। তার ধারণা, ‘আমরা এখনও ৬০ ভাগও ব্যাটিং করিনি। মঙ্গলবার কুমিল্লার বিপক্ষে আশা করছি টপ অর্ডারের কেউ রান করবে। যেটা বললাম টপঅর্ডারে কেউ রান না করলে কঠিন হয়ে যায়।’

‘আজকে যদি আমরা ০ উইকেটে ৬০ রান থাকতাম, আমাদের যে ব্যাটিং আছে জিয়া, গেইল, সোহান বা ব্রাভো। গেইলকে আজ মিডল অর্ডারে খেলিয়েছি আমরা। এদের মধ্যে কেউ ৫০-৬০ রান করত তাহলে সহজেই ১৫০-১৬০ হতো’

এআরবি/এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]