গতি দিয়ে বিস্ময় ছড়াচ্ছেন উমরান, এবার করলেন ১৫৭ কি.মি গতির বল

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ এএম, ০৬ মে ২০২২

গতি নিয়েই এখন তার খেলা। গতির সঙ্গেই বসবাস। একটার পর একটা বল কত গতি নিয়ে ছুঁড়তে পারেন, নিজের সঙ্গেই যেন সে প্রতিযোগিতায় মেতেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের কাশ্মীরি পেমার উমরান মালিক।

আইপিএলে রেকর্ড গড়েছিলেন কয়েকদিন আগেই। এবার নিজের রেকর্ডকেই ভেঙ্গে এগিয়ে গেলেন আরও সামনে। ছুঁড়লেন ১৫৭ কিলোমিটার গতির একটি বল।

কিছুদিন আগেই ১৫৪ কিলোমিটার গতির একটি বল করে বলেছিলেন, তিনি ১৫৫ কিমি বা তার বেশি গতিতেও বল করার ক্ষমতা রাখেন। সেটা যে শুধুই কথার কথা নয়, তা প্রমাণ করে দিলেন উমরান মালিক।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের এই পেসার বৃহস্পতিবার নিজেই ভাঙলেন নিজের রেকর্ড। ঘণ্টায় ১৫৭ কিমি বেগে বল করে হয়ে গেলেন এবারের আইপিএলের দ্রুততম বোলার। সব মিলিয়ে আইপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম বল করলেন তিনি এবং পিছনে ফেললেন দক্ষিণ আফ্রিকার অ্যানরিখ নরকিয়াকে। তার ১৫৬.২২ কিলোমিটার গতিতে বল করার রেকর্ড রয়েছে।

Umran

আইপিএলে সবচেয়ে দ্রুততম বলের রেকর্ড রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক পেসার শন টেইটের। ২০১১ সালে রাজস্থানের হয়ে তিনি ঘণ্টায় ১৫৭.৭১ কিমি গতিতে সেই বলটি করেছিলেন দিল্লির বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার দিল্লির বিরুদ্ধেই নিজের রেকর্ডটি গড়লেন উমরান। দিল্লির ইনিংসের শেষ ওভারে বল করতে এসেছিলেন। প্রথম বলটাই করেন ১৫৩ কিলোমিটার গতিতে। চতুর্থ বলটি ছিল ১৫৭ কিলোমিটার গতিবেগের। পঞ্চম বলে ১৫৬ কিলোমিটার গতিবেগ ছিল তার। এর আগেই একটি ওভারে ১৫৪ কিমি গতিতে বল করেছিলেন উমরান। শেষ ওভারের আগে পর্যন্ত সেটাই ছিল এই আইপিএলের দ্রুততম বল।

অর্থ্যাৎ শেষ ওভারের প্রথম ৫টি বলই ছিল একটি আরেকটিকে ছাড়িয়ে যাওয়া গতির। এই ৫টি বল করেছেন তিনি যথাক্রমে ১৫৩, ১৪৫, ১৫৪, ১৫৭, ১৫৬ কিলোমিটার গতিবেগে।

এর আগে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে ম্যাচে মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং রুতুরাজ গায়কোয়াড়কে ১৫৪ কিমি বেগে দুটি বল করেছিলেন উমরান। নিজের সেই রেকর্ডও বৃহস্পতিবার ভেঙে তিনি শন টেইটের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন।

গতিময় পেসে দুর্দান্ত বল করলেও দিনটি ভাল যায়টি উমরানের জন্য। কোনও উইকেট পাননি। চার ওভারে ৫২ রান দিয়েছেন। দ্রুততম বলটিতেও তাকে বাউন্ডারি হজম করতে হয়েছে। বাউন্ডারি মারেন রোভম্যান পাওয়েল।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]