৬০ রানের লিড নিয়ে লাঞ্চে শ্রীলঙ্কা, ফল আসবে চট্টগ্রামে?

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক চট্টগ্রাম থেকে
প্রকাশিত: ১২:১৬ পিএম, ১৯ মে ২০২২

জেতার জন্য শ্রীলঙ্কাকে দ্রুতই অল্প রানের মধ্যে অলআউট করতে হবে। পরে আবার তাড়া করতে হবে লঙ্কানদের ছুড়ে দেওয়া লক্ষ্য। এমন সমীকরণ মাথায় নিয়ে আজকের দিনের প্রথম সেশনটা খুব একটা কাজে লাগাতে পারলো না বাংলাদেশ দল। স্বস্তি নিয়েই মধ্যাহ্ন বিরতিতে গিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

চট্টগ্রাম টেস্টের পঞ্চম দিনের প্রথম সেশন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১২৮ রান। এরই মধ্যে ৬০ রানের লিড নিয়ে ফেলেছে তারা। প্রথম সেশনে ২৬.৫ ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে লঙ্কানরা যোগ করেছে ৮৯ রান। এর মধ্যে প্রথম ঘণ্টায়ই তারা করে ফেলেছিল ৬৭ রান।

কুশল মেন্ডিসের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে প্রথম ঘণ্টা নিজেদের করে নিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় ঘণ্টায় জোড়া আঘাত হেনেছেন তাইজুল ইসলাম। তবু জয়ের জন্য ঠিক যথেষ্ট মনে হচ্ছে না এটি। কেননা এখনও আরও ছয় উইকেট বাকি লঙ্কানদের। এর মধ্যে অধিনায়ক দিমুথ করুনারাত্নে উইকেটে থিতু হয়ে খেলে ফেলেছেন ১২৭ বল।

এমতাবস্থায় চট্টগ্রাম টেস্টে ফল আসার সম্ভাবনা বেশ কম বলেই মনে হচ্ছে। তবু দ্বিতীয় সেশনে যদি বল হাতে জাদুকরী কিছু করে দেখাতে পারেন সাকিব আল হাসান, তাইজুল ইসলাম, নাইম হাসানরা- তাহলে হয়তো শেষ সেশনে জয়ের একটা সুযোগ পেলেও পেতে পারে বাংলাদেশ।

BANGLADESH

চতুর্থ দিন বিকেলে ১৭.১ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৩৯ রান করেছিল শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের চেয়ে তারা পিছিয়ে ছিল ২৯ রানে। আজ সকালে খেলতে নেমে এই ২৯ রান করতে মোটে ৪ ওভার লাগে লঙ্কানদের। দিনের শুরুতেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকেন কুশল।

দিনের প্রথম ওভারেই তাইজুলকে জোড়া বাউন্ডারি হাঁকান এ ডানহারি মিডল অর্ডার। দুই ওভার পর খালেদ আহমেদ হজম করেন হ্যাটট্রিক বাউন্ডারি। আগের ইনিংসের সফলতম বোলার নাইম হাসানের বলেও চার-ছক্কা মেরে দলকে দারুণ শুরু এনে দেন কুশল।

রানের গতি থামানোর জন্য অবশেষে সাকিব আল হাসানকে আক্রমণে আনেন মুমিনুল হক। নিজের ওভারের তৃতীয় বলেই দারুণ টার্নিং ডেলিভারিতে করুনারাত্নেকে বিপদে ফেলেন দেন সাকিব। তবে অল্পের জন্য বেঁচে যান লঙ্কান অধিনায়ক। প্রথম ঘণ্টায় ৬৭ রান তুলে নেয় শ্রীলঙ্কা।

পানি পানের বিরতির পরের ওভারেই কুশলকে ফেরান তাইজুল। তার মিডল স্ট্যাম্পে পড়া ডেলিভারি সূক্ষ্ম টার্নে পরাস্ত করে কুশলের ব্যাট, বল গিয়ে আঘাত হানে অফস্ট্যাম্পে। সাজঘরে ফেরার আগে ৮ চার ও ১ ছয়ের মারে মাত্র ৪৩ বলে ৪৮ রান করেন এ মিডল অর্ডার ব্যাটার।

এরপর প্রথম ইনিংসে ১৯৯ রান করা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজকে এবার রানের খাতাই খুলতে দেননি তাইজুল। রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে শুরু করা ম্যাথিউজ ১৫ বল খেলেও রান করতে পারেননি। তাইজুলের ফুল লেন্থের বলে সজোরে ড্রাইভ করতে গিয়ে ফিরতি ক্যাচ দেন তিনি। দুর্দান্ত ক্যাচে তাইজুল নিজের তৃতীয় উইকেটটি নেন।

সেশনের বাকি সময়ে আর বিপদ ঘটতে দেননি অধিনায়ক করুনারাত্নে ও অলরাউন্ডার ধনঞ্জয় ডি সিলভা। এ দুজনের অবিচ্ছিন্ন ৮ ওভারের জুটিতে এসেছে ১৮ রান। করুনারাত্নে ১২৭ বলে ৪৪ ও ধনঞ্জয় ২৪ বলে ১২ নিয়ে দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু করবেন।

এসএএস/এমএমআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]