বিসিবির আমন্ত্রণে শেরে বাংলায় খুদে ক্রিকেটারদের মেলা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩৭ পিএম, ২৩ মে ২০২২

আসিথা ফার্নান্দোর বলে কট বিহাইন্ড হয়ে সাজঘরে ফিরছিলেন মুমিনুল হক। তিনি সীমানা দড়ি পার না হতেই গ্যালারি থেকে দর্শকদের হর্ষধ্বনি। চোখ রাখতেই দেখা গেলো ড্রেসিংরুম থেকে বের হয়েছেন নতুন ব্যাটার মুশফিকুর রহিম। তাকে দেখতে পেয়েই উন্মাতাল শেরে বাংলার গ্যালারি।

এটি একটি খণ্ডচিত্র মাত্র। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের প্রথম দিনের শুরুতে ভয়াবহ ব্যাটিং বিপর্যয়ের পরও পুরোটা সময় গ্যালারির পূর্ণ সমর্থন পেয়েছে বাংলাদেশ দল। এই ব্যবস্থা করেছে খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বোর্ডের আমন্ত্রণেই শেরে বাংলায় আজ বসেছে খুদে ক্রিকেটারদের মেলা।

ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টিতে শেরে বাংলায় দর্শকের কমতি হয় না। তবে সাদা পোশাকের পাঁচদিনের ক্রিকেটে বেশিরভাগ সময়ই খাঁ খাঁ করে গ্যালারি। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের প্রথম দিন সাউদার্ন ও শহীদ জুয়েল স্ট্যান্ডের প্রায় পুরোটাই ছিল দর্শকে ভর্তি। যাদের দর্শকের চেয়ে ভবিষ্যৎ ক্রিকেটার বলাই অধিক মানানসই।

Cricket

কেননা লাল, সবুজ, নীল কিংবা আকাশি জার্সিতে গ্যালারি মাতিয়ে রাখা খুদে দর্শকদের সবাই ঢাকা মেট্রোর অধীনে কোনো না কোনো ক্রিকেট একাডেমির ছাত্র-ছাত্রী। তারা সবাই বিসিবির আমন্ত্রণে নিজেদের কোচের সঙ্গে খেলা দেখতে এসেছেন মাঠে। এদের অনেকেই আবার প্রথমবারের মতো এসেছেন টেস্ট ম্যাচ দেখতে।

সপ্তাহখানেক আগে চট্টগ্রাম টেস্টের সময়ই ঢাকা মেট্রোর অধীনে থাকা সব ক্রিকেট একাডেমিকে আমন্ত্রণ বার্তা পাঠায় বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগ। সেই আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে আজ খেলা শুরুর আগে থেকেই মাঠে আসতে শুরু করে এসব খুদে ক্রিকেটার। তাদের সুবিধার্থে বিসিবি দুপুরের খাবার এবং সার্বক্ষণিক পানির ব্যবস্থাও করেছে।

বিসিবির আমন্ত্রণে কোচের সঙ্গে মাঠে এসেছেন ধানমন্ডি ক্রিকেট একাডেমির ব্যাটার সাকিব হাসান। কাকতালীয়ভাবে সাকিব আল হাসানই তার প্রিয় ক্রিকেটার। তবে আজ প্রথম বলেই শূন্য রানে আউট হওয়ায় তারকা সাকিবের ব্যাটিং বেশিক্ষণ দেখতে পারেননি গুণমুগ্ধ সাকিব হাসান।

এই খুদে সাকিব নিজেও স্বপ্ন দেখেন একদিন এই মাঠে নেমে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধিত্ব করার। এখন অনূর্ধ্ব-১৭ পর্যায়ে থাকা এ ক্রিকেটার বলছিলেন, ‘এখন আমার ব্যাটিং ভালো হচ্ছে। শুরুতে নিচের দিকে খেললেও এখন মিডল অর্ডারে ব্যাট করছি। সামনেই ঢাকা মেট্রোতে নিবন্ধনের জন্য নাম লেখাবো। তাই কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছি।’

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের মুনির মাশুক জয় আজই প্রথম এসেছেন টেস্ট ম্যাচ দেখতে। প্রিয় ক্রিকেটার লিটন দাস দারুণ ব্যাট করতে থাকায় চোখেমুখে আনন্দের ঝিলিক মাশুকের। তিনি বলছিলেন, ‘আজই প্রথম টেস্ট দেখতে এলাম। লিটন দাস দারুণ খেলছে। আমার খুব ভালো লাগছে।’

শেরে বাংলায় আজ সাকিব-মাশুকসহ এমন কয়েকশ খুদে ক্রিকেটারের দেখা মিলেছে। করোনাভাইরাসের কারণে মাঝে প্রায় এক বছরের বেশি সময় দর্শক প্রবেশ বন্ধ ছিল। গত বছর পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে ফেরানো হয়েছে দর্শক। তবে টেস্ট ম্যাচে এতো বেশি দর্শকের দেখা মেলেনি। এবার খুদে ক্রিকেটারদের সরব উপস্থিতি মেটালো দর্শকখরা।

এসএএস/আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]