সকালে দুই উইকেট নিয়ে ম্যাচ জমানোর আশায় শ্রীলঙ্কা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ২৩ মে ২০২২

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনের প্রথম ঘণ্টা একচেটিয়া আধিপত্য বিস্তার করেছে শ্রীলঙ্কা। টস হেরে বোলিং করতে নেমে সেই ঘণ্টা ১০ ওভারে মাত্র ৩১ রান খরচায় বাংলাদেশের পাঁচ ব্যাটারকে সাজঘরে পাঠিয়ে দিয়েছিল দিমুথ করুরাত্নের দল। কিন্তু এরপর বাকি সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা স্রেফ হতাশাই দেখেছে সফরকারীরা।

মাত্র ২৪ রানে ৫ উইকেট পড়ার পর দিনের বাকি সময়ে আর উইকেট পড়তে দেননি মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। দিন শেষে সেই ৫ উইকেটেই ২৭৭ রানে পৌঁছেছে বাংলাদেশ। মুশফিক ১১৫ ও লিটন ১৩৫ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন। এ দু’জনের জুটি এখন ২৫৩ রানের।

মুশফিক-লিটনের এমন দাপুটে ব্যাটিংয়ের পরও ঘুরে দাঁড়ানোর আশা ছাড়তে রাজি নন শ্রীলঙ্কার হেড কোচ ক্রিস সিলভারউড। তিনি মনে করেন, দ্বিতীয় দিন সকালে দ্রুত দুইটি উইকেট নিতে পারলেই ম্যাচটি আবার জমে উঠবে। তবে উইকেট যে এখনও ব্যাটিংয়ের জন্য বেশ ভালো- সেটিও জানিয়েছেন লঙ্কান হেড কোচ।

সিলভারউডের ভাষ্য, ‘আমি মনে করি উইকেটটি ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো। প্রথম ঘণ্টায় কিছু মুভমেন্ট ছিল, স্পিনও ধরেছে খানিক। এমন শুরুর পর আর ভালো বোলিং করতে পারিনি। তবে মজার বিষয় হলো, কাল সকালে দ্রুত দুটি উইকেট নিলেই ম্যাচ আবার জমে উঠবে। আমাদের এটি নিশ্চিত করতে হবে যেনো সঠিক লাইনে বোলিং করতে পারি এবং দ্রুত উইকেট নিয়ে নিজেদের ম্যাচে রাখতে পারি।’

দুই পেসার কাসুন রাজিথা ও আসিথা ফার্নান্দোর বোলিংয়ে খুশি লঙ্কান হেড কোচ। আজকের পাঁচ উইকেট নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করেছেন এ দুই পেসার। কিন্তু দুই স্পিনার রমেশ মেন্ডিস ও প্রবীণ জয়াবিক্রমের পারফরম্যান্সে হতাশ সিলভারউড। স্পিনের বিপক্ষে মুশফিক-লিটন সহজ ডেলিভারি অনেক পেয়েছেন বলে মনে করেন তিনি।

লঙ্কান হেড কোচ বলেছেন, ‘স্পিনে আমরা আরও ভালো বোলিং করতে পারতাম। এ বিষয়ে ড্রেসিংরুমে আমাদের কথা বলতে হবে। আমার মনে হয়, আরও ভালো লাইন ও লেন্থে বোলিং করতে হবে। আমরা মারার মতো ডেলিভারি অনেক বেশি দিয়েছি। এ বিষয়টি শুধরে নিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘নিজেদের শৃঙ্খলা ধরে রেখে পেসাররা দুর্দান্ত ছিলো। কিন্তু এরপর আমরা সেখান থেকে চাপ ধরে রাখতে পারিনি। অনেক বেশি রান করার বল দিয়েছি আমরা। যখন আবার সুযোগ তৈরি করেছিলাম, আমরা সে ক্যাচটি নিতে পারিনি। সেটি ধরতে পারলে হয়তো বড় পার্থক্য হতো।’

মুশফিক-লিটনের জুটির প্রশংসা করে সিলভারউড বলেছেন, ‘তারা দুজন অসাধারণ ব্যাট করেছে। ভালো বলগুলো দেখে খেলেছে। আমরা তাদেরকে মারার মতো অনেক বল দিয়েছি। দুজন মিলে দারুণ জুটি গড়ে ফেলেছে। তাদেরকে প্রাপ্য সম্মান দিতেই হবে। আমরা তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে পারতাম। কিন্তু তারা বাংলাদেশকে ভালো অবস্থানে নিয়ে গেছে।’

এসএএস/আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]