তাসকিন বললেন সবাই সন্তুষ্ট, আমিও সন্তুষ্ট

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২৩ পিএম, ২২ জুন ২০২২

ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে বারবার মাঠের বাইরে ছিটকে যেতে হয় তাসকিন আহমেদকে। কিন্তু ছিটকে গিয়ে তিনি হারিয়ে যান না। বারবার অদম্য শক্তি নিয়ে ফিরে আসেন আবার মাঠে। কঠোর পরিশ্রম আর অধ্যাবসায়ের পর সব প্রতিকূলতাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছেন তাসকিন।

দক্ষিন আফ্রিকা সফরে ওয়ানডে সিরিজ খেলার পর ইনজুরিতে পড়ে দেশে ফিরে বেশ কিছুদিন ছিলেন মাঠের বাইরে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে খেলতে পারেননি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টেও নেই। তবে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দলে রয়েছেন তিনি।

তার আগে নিজের ইনজুরি থেকে ফেরার গল্প জানিয়েছেন আজ মিরপুরে সাংবাদিকদের কাছে। সেখানেই তিনি জানালেন, যেভাবে বোলিং করছেন, তাতে বোর্ড ম্যানেজমেন্টের সবাই তাকে দেখে সন্তুষ্ট এবং তিনি নিজেও নিজের বোলিংয়ে সন্তুষ্ট।

এখন কী অবস্থায় আছেন? জানতে চাইলে তাসকিন আহমেদ বলেন, ‘কয়েকদিন আগে জিম করতে গিয়ে ব্যথা পেয়েছিলাম। এখন আল্লাহর রহমতে ঠিক আছি। গত দুইদিন বোলিং করলাম আল্লাহর অশেষ রহমতে আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি এখন।’

বোলিং দেখে ম্যানেজমেন্টের কী বক্তব্য? তাসকিন বলেন, ‘তারা সবাই সন্তুষ্ট, আমিও সন্তুষ্ট। আল্লাহ যদি চান, পরশু যাব (ওয়েস্ট ইন্ডিজে) ইনশাআল্লাহ্। ওভারঅল খুশি আছি এবং আল্লাহর রহমতে ভালো আছি।’

নিজের বোলিংয়ে সন্তুষ্ট তাসকিন। বোলিং করতে গিয়ে কত শতাংশ দিয়ে বল করলেন? তাসকিন বলেন, ‘গতকাল এবং আজকে একশ শতাংশ দিয়েই বোলিং করার চেষ্টা করেছি এবং এফোর্টগুলো ঠিক ছিল। সবধরনের বলই চেষ্টা করেছি এবং এখানে আমাদের নির্বাচকরা, ডাক্তার সবাই ছিলেন। তারাও স্যাটিসফাইড। আমিও স্যাটিসফাইড। সমস্যা হয়নি, এখন সামনে বাকিসব আল্লাহর ইচ্ছা।’

কেন বারবার এমন ইনজুরিতে পড়েন? সেখান থেকে ফিট হয়ে ফিরে আসতে অনেক সময় লাগে। যে কারণে জাতীয় দলে দীর্ঘ অনুপস্থিতি তৈরি হয়। তাসকিন বলেন, ‘আসলে যেকোনো সময় যেকোন মুহূর্তে ইনজুরি হতে পারে। আপনিও এখন হাঁটতে গিয়ে পা মচকায়ে পড়ে যেতে পারেন (হাসি)। তো এইটা আসলে ভয় পেয়ে লাভ নাই। ইনজুরি হতেই পারে। যখন খেলতে নামব শতভাগ দিয়েই চেষ্টা করব। ইনজুরি হলে আবার রিহ্যাব করবো, আবার (ফিরে) আসব। এটা হতেই পারে। দেশের জন্য খেলতে গিয়ে ইনজুরড হতেই পারি। হলে আবার চেষ্টা করব এইটাই।’

আইএইচএস/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।