বিজয় টেস্ট একাদশে ফিরলে বাদ পড়বেন কে-শান্ত নাকি মুমিনুল?

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৫৭ পিএম, ২৩ জুন ২০২২

তাকে শেষ মুহূর্তে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ৮ বছর পর আবার টেস্টে ডাক পেয়ে এখন ওয়েস্ট ইন্ডিজে এনামুল হক বিজয়। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে সেন্ট লুসিয়ায় এই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই শেষবার টেস্ট খেলেছিলেন উইকেটরক্ষক এই ব্যাটার।

প্রায় ৮ বছর পর সেই মাঠেই কি আবার সাদা পোশাকে জাতীয় দলে ফেরা হবে বিজয়ের? ঘরোয়া ক্রিকেট এনসিএল, বিসিএলে ভালো খেলার পর এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ৫০ ওভারের আসরে হাজার রান করা বিজয়কে কি সত্যিই টেস্ট দলে সুযোগ দেওয়া হবে?

টাইগার ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে রাজ্যের কৌতুহল। পাশাপাশি আরও একটি প্রশ্ন অনেকের মনেই ঘুরপাক খাচ্ছে-বিজয় যদি একাদশে সুযোগ পান, তাহলে কপাল পুড়বে কার? নাজমুল হোসেন শান্ত নাকি মুমিনুল হকের?

টিম ম্যানেজমেন্ট এখনো হ্যাঁ-না কিছুই বলেনি। প্রথম টেস্ট শেষে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও পরিষ্কার করেননি এই বিষয়ে।

মুমিনুলকে বিশ্রাম দেওয়া বা তার আগামী টেস্ট না খেলা নিয়ে প্রশ্ন উঠলে সাকিব জানান, মুমিনুল নিজেই সিদ্ধান্ত নেবেন তার বিশ্রাম দরকার কিনা।

অধিনায়ক সাকিব বরং পুরো টপঅর্ডারের ভাঙাচোরা অবস্থার দিকেই আঙুল তুলেছেন। জানিয়েও দিয়েছেন, একা মুমিনুল নয়, ওপরের দিকের কারও অবস্থাই বিশেষ ভালো না।

মুমিনুল ১১ টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান। কিন্তু শেষ ১২ ইনিংসে তার অবস্থা চরম খারাপ। ১২ ইনিংসে সংগ্রহ (১৩*, ০, ৩৭, ০, ২, ৬, ৫, ২, ৯, ০, ০, ৪) মোটে ৭৮ রান। শেষ ৫ টেস্টের ৯ ইনিংসে তিনবার শূন্য আর বাকি ৬ বার দুই অংকেই পৌঁছানো সম্ভব হয়নি।

নাজমুল হোসেন শান্তর অবস্থাও খারাপ। শেষ ৬ ইনিংসে (৭, ১, ৮, ২, ০, ১৭) এ বাঁহাতিও মাত্র একবার দুই অংকে পৌঁছাতে পেরেছেন। এখন এই দুজনার মধ্যে কাকে রেখে কাকে খেলানো হবে, সেটা হয়তো আজ বৃহস্পতিবার প্র্যাকটিসেই বোঝা যাবে। সে প্র্যাকটিসের পর সম্ভাব্য একাদশের রুপরেখা তৈরি হতে হতে বাংলাদেশে মধ্যরাত।

তার আগে শুধুই জল্পনা-কল্পনার ফানুস উড়ছে আকাশে। তবে একটি আভাস মিলেছে, শেষ পর্যন্ত সেন্ট লুসিয়া টেস্টেও মুমিনুলকে আরও একটি সুযোগ দেওয়া হতে পারে।

আর নাজমুল শান্ত যেহেতু তিন নম্বরে খেলছেন আর এনামুল হক বিজয়ের বর্তমান ব্যাটিং পজিশনও ওয়ান ডাউন, তাই শান্তর জায়গায়ই বিজয়কে খেলানোর সম্ভাবনা বেশি।

আর যদি তা হয়, তাহলে বিজয়ের ক্যারিয়ারে এই সেন্ট লুসিয়াই হবে ভাগ্য বদলের ক্ষেত্র। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে এই মাঠেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে শেষ টেস্ট খেলেছিলেন বিজয়।

সে ম্যাচেও তার ব্যাটিং পজিশন ছিল ওয়ান ডাউন। তামিম ইকবাল আর শামসুর রহমান শুভ ওপেন করেছিলেন। তিনে নেমে বিজয় সুবিধা করতে পারেননি। প্রথম ইনিংসে ৯ রান করলেও পরেরবার ফিরে গিয়েছিলেন শূন্য হাতে। দেখা যাক, এবার সুযোগ পেলে সেন্ট লুসিয়ায় ভাগ্যবদল ঘটে কিনা বিজয়ের!

এআরবি/এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]