সেই ম্যাথ্যু হেইডেনের শরণাপন্ন হচ্ছে পাকিস্তান

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৫ পিএম, ২৬ জুন ২০২২

ওমান-আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাথ্যু হেইডেনকে নিয়োগ দিয়েছিল পাকিস্তান। যার ফলও তারা হাতেনাতে পেয়ে গিয়েছিল। অত্যন্ত সুশৃঙ্খল একটি দলে পরিণত হয়েছিল তারা।

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই পাকিস্তানের এই বদলে যাওয়া রূপ দেখেছিল বিশ্ব। শুধু তাই নয়, বিশ্বকাপের পর এখনও পর্যন্ত সেই শৃঙ্খলার প্রভাব বিরাজমান পাকিস্তান ক্রিকেট দলে।

যদিও বিশ্বকাপের পর আর ম্যাথ্যু হেইডেনকে রাখেননি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। অনেকেই বলেছিল হেইডেনকে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হোক। এমনকি বর্তমান কোচ সাকলায়েন মোস্তাক এবং অধিনায়ক বাবর আজমরা চেয়েছিলেন ভালোমানের একজন বিদেশী কোচ। তারা যে হেইডেনকেই চেয়েছিলেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড শেষ পর্যন্ত সাকলায়েন মোস্তাকের ওপর ভার কমিয়ে তাকে পুরোপুরি প্রধান কোচ হিসেবেই নিয়োগ দিয়েছে। সঙ্গে ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সাবেক কিংবদন্তি ব্যাটার মোহাম্মদ ইউসুফকে।

তবে এবার আবারও সেই হেইডেনের শরণাপন্ন হচ্ছে পাকিস্তান। আরও একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসন্ন। তার আগেই অস্ট্রেলিয়ার হেইডেনকে তারা ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে। ব্যাটিং কোচ মোহাম্মদ ইউসুফের সঙ্গে মিলেই কাজ করবেন হেইডেন।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান রমিজ রাজা শনিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পাকিস্তানি মিডিয়াকে। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশকে নিয়ে যে ত্রিদেশীয় সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে, সেখানেই পাকিস্তান দলের সঙ্গে যোগ দেবেন হেইডেন।

সে সঙ্গে রমিজ রাজা জানিয়েছেন, চুক্তি শেষ না হওয়া পর্যন্ত প্রধান কোচের দায়িত্ব চালিয়ে যাবেন সাকলায়েন মোস্তাক। তিনি বলেন, ‘এক বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত সাকলায়েন প্রধান কোচের ভূমিকা পালন করবেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে তার যুক্ত থাকার স্বার্থে এক বছর পর হয়তো চুক্তি আর নবায়ন নাও হতে পারে। তবে, জাতীয় দলের সঙ্গে এক বছর পূর্ণ দায়িত্ব পালন করেই তিনি যাবেন।’

রমিজ রাজা জানিয়েছেন, সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানে আসবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। লাহোর এবং করাচিতেই প্রায় সবগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মুলতান ভেন্যু তালিকায় থাকলেও তাকে বাদ দিচ্ছে পিসিবি। রমিজ বলেন, ‘মুলতানের জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। তবে, টেস্ট সিরিজের জন্য মুলতানকে এডজাস্ট করে নেয়া হবে।’

টানা সাফল্যের মধ্যে থাকায় বাবর আজমদের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। বিশেষ করে গত বিশ্বকাপে ভারতকে হারানোর পর থেকে এমনিতেই উচ্ছ্বাসে ভাসছে পুরো পাকিস্তান। রমিজ বলেন, ‘বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত ভারতকে হারানো, বিশেষ করে ১০ উইকেটের ব্যবধানে বিশাল সেই জয়ের পর বিশ্বের দরবারে পাকিস্তানের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেটের মূল্য অনেক বেড়ে গেছে। আমরা সারা বিশ্ব থেকেই অনেক বেশি রেসপন্স পেয়েছি। সবাই এখন আমাদের সম্মান করে, সমীহ করে। এর আগে পাকিস্তান ক্রিকেটে যা কখনো ঘটেনি।’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]