একসঙ্গে খেলবেন কোহলি-বাবর, সম্ভাবনার পালে জোর হাওয়া

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:০৯ পিএম, ৩০ জুন ২০২২

আফ্রো-এশিয়া কাপকে আবারও ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। আগামী বছর এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হতে পারে। তেমনটা হলে একসঙ্গে খেলতে দেখা যাবে ভারতীয় তারকা বিরাট কোহলি এবং পাকিস্তানী তারকা বাবর আজমকে।

কোহলি-বাবরের একসঙ্গে খেলার সম্ভাবনার এ খবর আগেই জানা গিয়েছিল। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) বিপণন ও অনুষ্ঠান প্রধান প্রভাকরণ থানরাজ আগেই জানিয়েছিলেন, ১৬ বছর ফিরে আসছে আফ্রো-এশিয়া কাপ।

আগেই তৈরি হওয়া এই সম্ভাবনার পালে জোর হাওয়া লাগিয়ে দিলেন এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভাপতি, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সেক্রেটারি জয় শাহ। তার কথায়ও পরিষ্কার, সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছরই দেখা যেতে পারে আফ্রো-এশিয়া কাপ। যেখানে এশিয়ান একাদশের বিরুদ্ধে খেলবে আফ্রিকান একাদশ।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এশিয়া ক্রিকেট কাউন্সিলের চেয়ারম্যান জয় শাহ বলেন, ‘আমরা এ ব্যাপারে বেশ কিছু প্রস্তাব এরইমধ্যে পেয়েছি। এই প্রতিযোগিতাটা দারুণ। এতে শুধু ব্যবসায়িক লাভই হবে না, আফ্রিকার ক্রিকেটেরও অনেক উন্নতি হবে। আমরা এখন আইনি দিকগুলো খতিয়ে দেখছি।’

কোথায় এই প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হবে, সেটা ঠিক করাই আপাতত এসিসি’র মূল দায়িত্ব। উল্লেখ্য, বার্মিংহ্যামে বিরাট কোহলিদের টেস্ট চলাকালীনই আইসিসি’র বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানেও বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসতে পারে।

প্রথমবার ২০০৫ সালে এই সিরিজটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেবার হয়েছিল ৫০ ওভারের ফরম্যাটে তিন ম্যাচের সিরিজ। তিনটি ম্যাচেই জিতেছিল এশিয়া একাদশ। তখন একই দলের হয়ে খেলেছিলেন শহিদ আফ্রিদি, রাহুল দ্রাবিড়রা।

ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের নিয়ে তৈরি হওয়া এশিয়া একাদশকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মাহেলা জয়বর্ধনে। আফ্রিকার একাদশে ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে এবং কেনিয়ার ক্রিকেটাররা।

২০০৭ সালে অনুষ্ঠিত হয়েছিল সর্বশেষ আফ্রো-এশিয়া কাপ। সেবার এশিয়ার হয়ে খেলেছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, মাশরাফি বিন মর্তুজা, মোহাম্মদ ইউসুফ, সনৎ জয়সুরিয়ার মতো তারকারা। ২০০৭ সালের পর ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক খারাপ হয়ে যাওয়ায় এই সিরিজ আর অনুষ্ঠিত হয়নি।

প্রসঙ্গতঃ আইসিসি’র টুর্নামেন্টের বাইরে এখন আর ভারত-পাকিস্তানের দ্বৈরথ দেখা যায় না। একে অপরের টি-টোয়েন্টি লিগেও খেলেন না কোনও দেশের ক্রিকেটার। সে জায়গায় কোহলি এবং বাবরের মতো দুই বিশ্বসেরা ব্যাটারকে একসঙ্গে খেলতে দেখা গেলে সেটা যে এক অভাবনীয় ব্যাপার হবে, তা বলাই বাহুল্য।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]