দুই ম্যাচের সিরিজ খেলতে দুবাইয়ের পথে টাইগাররা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩০ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

ক্রিকেটের চার পরাশক্তি ভারত, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড আর পাকিস্তান এখন নিজেদের মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিয়ে ব্যস্ত। যদিও পরে খেলা আছে, তারপরও ধরা হচ্ছে ওই দল চারটির বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতেই এ সিরিজ। সেই আলোকে বলা যায়, বাংলাদেশও খুব শিগগিরই বিশ্বকাপ প্রস্তুতি শুরু করতে যাচ্ছে।

আগামী মাসে নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি আসরে অংশ নিবে সাকিব বাহিনী। ৭ অক্টোবর ক্রাইস্টচার্চে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ বাংলাদেশের। তিন দলের ওই আসরে প্রতি দলের সঙ্গে দুবার করে খেলা। তার মানে ওই আসরে ৪ ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। আর ফাইনালে পৌঁছুতে পারলে একটি ম্যাচ বেশি খেলার সুযোগ পাবে।

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তিন জাতি টুর্নামেন্টের আগে হঠাৎ করেই আরও দুটি বাড়তি ম্যাচ খেলার সুযোগ এসেছে টিম বাংলাদেশের সামনে। আগামী ২৫ ও ২৭ সেপ্টেম্বর দুবাইতে আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে টাইগারররা। পাশাপাশি দুবাইতে আরও বাড়তি দুদিন অনুশীলন সেশনও কাটাবে টিম বাংলাদেশ। সে লক্ষ্যে আজ বিকেল সাড়ে ৫টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে করে দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে আকাশে উড়েছে নুরুল হাসান সোহানের দল।

সবার জানা, নিউজিল্যান্ড সফর ও বিশ্বকাপে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তবে, দুবাইতে আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজে নেই সাকিব আল হাসান। তাই সাকিবের অনুপস্থিতিতে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্বে থাকবেন নুরুল হাসান সোহান।

বৃহস্পতিবার বিকেলে দেশ ছাড়ার আগে দেশের মাটিতে মোটামুটি বিশ্রামেই ছিল টাইগাররা। দলগতভাবে কোন আনুষ্ঠানিক অনুশীলন হয়নি। তবে ব্যক্তিগত পর্যায়ে কেউ কেউ অনুশীলন করেছেন।

আর আজ যাবার আগেও সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অনুশীলনে কেটেছে টাইগারদের। সেটা অবশ্য মুলতঃ ফিটনেস অনুশীলন। দুবাই যাবার আগে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর অবধী ফিটনেস টেস্ট দিয়েছেন ১৭ ক্রিকেটার।

আগেই জানা, অধিনায়ক সাকিবসহ নিউজিল্যান্ড ও বিশ্বকাপের দলে আছেন ১৫ জন। তার সঙ্গে ৪ জন স্ট্যান্ডবাইও রাখা হয়েছে। বলে রাখা ভালো, এই সর্বমোট ১৯ জনের ১৭ জনই আজ দুবাই গেছেন।

Cricket

সিপিএলে ব্যস্ত থাকায় অধিনায়ক সাকিব নেই এ সফরে। এছাড়া অলরাউন্ডার শেখ মাহদিও নেই। এ অফস্পিনিং অলরাউন্ডার শেখ মাহদি পবিত্র ওমরাহ করার জন্য সৌদি আরব আছেন। তাই তার পক্ষেও আরব আমিরাতের বিপক্ষে ২ ম্যাচের সিরিজ খেলতে দুবাই যাওয়া সম্ভব হচ্ছেনা।

এছাড়া বাকি ১৭ জনের সবাই চলে গেছেন দুবাই। সঙ্গে নতুন টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার শ্রীধরন শ্রীরাম, টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন ও লজিস্টিক ম্যানেজার নাফিস ইকবাল আছেন। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু এবং ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস দলের সৃ্গে দুবাই যাচ্ছেন না। তারা একবারে দুবাইতে দলের সঙ্গী হবেন।

নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব দুবাই পর্বে থাকছেন না। তাকে কতটা মিস করবেন? দেশ ছাড়ার আগে এ প্রশ্ন করা হলে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান বলেন, ‘অবশ্যই সাকিব ভাইকে মিস করবে দল। তার মতো একজন ক্রিকেটারকে তো সবাই সবসময় দলে চায়। কিন্তু আমার কাছে মনে হয় এটা অন্য আরেকজনের জন্য বাড়তি সুযোগ যে তার জায়গায় খেলবে, ওই ইমপ্যাক্টটা করতে হবে।’

অধিনায়ক সাকিবের ডেপুটি হিসেবে নিউজিল্যান্ড সফর ও টি টোয়েন্টি বিশ^কাপে অংশ নেবেন। সাকিবের সঙ্গে কথা হয় কিনা ? দুবাইতে আরব আমিরাতের সঙ্গে ম্যাচ দুটি নিউজিল্যান্ডের তিন জাতি টুর্নামেনট আর বিশ^কাপে কতটা কাজে দিবে ? এমন প্রশ্নর জবাবে সোহান বলেন , আসলে সাকিব ভাইয়ের সাথে কথাতো সবসময় হয়। কিন্তু সেভাবে কথা হয়নি, উনিও সিপিএল নিয়ে ব্যস্ত। হয়তো নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার পর কথা হবে। অবশ্যই লক্ষ্য থাকবে জয়ের দৌড়ে থাকা। আমরা যদি দুইটা ম্যাচই জিততে পারি সে আত্মবিশ্বাস নিউজিল্যান্ড ও বিশ্বকাপে কাজে দিবে।

এ সফরকে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি বলা যায় কি না? এ প্রশ্নের জবাবে অধিনায়ক সোহান বলেন, ‘বাংলাদেশের হয়ে প্রতিটি ম্যাচ খেলাই গর্বের। আমার কাছে মনে হয় বিশ্বকাপের আগে ভালো একটা প্রস্তুতি হবে।’

সোহানের অনুভব, আরব আমিরাতের সঙ্গে জিততে পারলে অবশ্যই দলের আস্থা ও আত্মবিশ্বাস বাড়বে। তার ভাষায়, ‘আমরা আরব আমিরাতকে হারাতে পারলে আত্মবিশ্বাস বাড়বে। যা আমাদের নিউজিল্যান্ড সিরিজ ও বিশ্বকাপে কাজে দিবে। আমরা গত কয়েকটি ম্যাচ হেরেছি, কিন্তু জয়টা অভ্যাসে পরিণত করা গেলে দলের কম্বিনেশন ও চেহারা বদলে যাবে। লক্ষ্য থাকবে যেন আমরা সে কাজটাই করতে পারি।’

এআরবি/আইএইচএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।