এশিয়া কাপে পাকিস্তান দলের খেলোয়াড় মেয়ে, আম্পায়ার মা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪১ পিএম, ০২ অক্টোবর ২০২২

ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম টুর্নামেন্ট হিসেবে পুরোপুরি নারী অফিসিয়াল দিয়ে চলছে এবারের নারী এশিয়া কাপ। পুরো আসরে নেই একজনও পুরুষ আম্পায়ার কিংবা রেফারি। ছয়টি দেশের নয়জন আম্পায়ার মিলে পরিচালনা করবেন এশিয়া কাপের সবগুলো ম্যাচ।

যেখানে পাকিস্তান থেকে রয়েছেন সালিমা ইমতিয়াজও হুমায়রা ফারাহ। মজার বিষয় হলো আম্পায়ার সালিমার মেয়ে কাইনাত ইমতিয়াজ খেলোয়াড় হিসেবে এসেছেন পাকিস্তানের হয়ে এশিয়া কাপ খেলতে। অর্থাৎ একই আসরে ভিন্ন ভূমিকায় রয়েছেন পাকিস্তানের মা-মেয়ে।

শনিবার এশিয়া কাপের উদ্বোধনী দিনে দ্বিতীয় ম্যাচে লড়েছে ভারত ও শ্রীলঙ্কা। এই ম্যাচে মূল আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন সালিমা। নিজের মায়ের এমন সাফল্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি মেয়ে কাইনাত।

টুইটারে এক বিশদ বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘আমার মাকে ২০২২ নারী এশিয়া কাপের আম্পায়ার হিসেবে দেখে খুবই আনন্দিত ও গর্বিত। তার সাফল্যে আমার আনন্দের শেষ নেই। খুবই অনুপ্রেরণাদায়ী একজন মানুষ আমার মা। সবসময় পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করা তার স্বপ্ন ছিল। সেই স্বপ্ন নিয়ে আমিও এগিয়ে চলেছি।’

কাইনাত আরও লিখেছেন, ‘আমরা এখন একসঙ্গে পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করবো। ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ দিয়ে মা প্রথমবার আম্পায়ারিং করলেন। পুরো যাত্রায় দারুণভাবে সমর্থন দেওয়ায় আমার বাবাকেও অভিনন্দন। এমন মা-বাবা পেয়ে আমি সত্যিই সৌভাগ্যবান। আমার ভাইকেও ধন্যবাদ। আমি সবাইকে ভালোবাসি।’

অবশ্য মা সালিমা ইমতিয়াজ এরই মধ্যে এশিয়া কাপে মাঠে নামলেও, পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচের একাদশে জায়গা হয়নি ডানহাতি পেসার কাইনাতের। রোববার মালয়েশিয়ার বিপক্ষে ৯ উইকেটের জয়ে এশিয়া কাপ শুরু করেছে পাকিস্তান। এই ম্যাচে কাইনাতকে দলে রাখেনি তারা।

এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে ১৫টি ওয়ানডে ও ২০টি কুড়ি ওভারের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন কাইনাত। যেখানে ২৬৫ রানের সঙ্গে ১৬ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

এসএএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।