চট্টগ্রামে টাইগাররা, দলের সঙ্গে যাননি সাকিব

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:১২ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২

‘সাকিব আল হাসানের প্র্যাকটিস লাগে না। প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন, চ্যাম্পিয়ন অলরাউন্ডার বল ও ব্যাট হাতে মাঠে নেমেই দুর্বার।’ তাকে নিয়ে এমন একটি কথা প্রচলিত আছে।

কথাটা অনেকটাই সত্য। সাকিব আসলেই প্র্যাকটিস কম করেও নিজের সেরাটা উপহার দিতে পারেন। গত প্রায় দুই বছরে এমন উদাহরণ আছে অন্তত হাফ ডজন।

দেখা গেছে, পুরো দল ১৫ দিন বা তার বেশি সময় ধরে কঠোর অনুশীলনে মগ্ন। অন্যদিকে সাকিব আইপিএল, পিএসএল বা সিপিএল খেলে কিংবা ছুটি কাটিয়ে বড়জোর এক থেকে দুটি প্র্যাকটিস সেশনে অংশ নিলেন। কিন্তু মাঠে নেমে ঠিকই পারফর্ম করলেন।

বেশি দূর তাকাতে হবে না। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে ২ ম্যাচের সিরিজ চলাকালীন সাকিব ব্যস্ত ছিলেন ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লিগে। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে হওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজেও খেলার আগের দিন দলের সাথে যোগ দেন। কিন্তু মাঠে দলের সেরা পারফরমারই ছিলেন সাকিব।

এবার ঘরের মাঠে ভারতের সাথে সিরিজ শুরুর আাগেও সাকিব সবার পরে দলের সাথে যোগ দিয়েছেন। আরব আমিরাতে টি-টেন খেলে তিনি দেশে ফেরেন ১ ডিসেম্বর। ২ ডিসেম্বর বিশ্রামে ছিলেন। ৩ ডিসেম্বর একদিন প্র্যাকটিস করেই নেমে গেছেন ওয়ানডে সিরিজে। নেমেই ভারতের বিপক্ষে ৩৬ রানে ৫ উইকেট দখল করে দলের জয়ের অন্যতম রূপকার বনে গেছেন সাকিব।

এদিকে ভেতরের খবর, চট্টগ্রামে ভারতের সাথে শেষ ওয়ানডেটিও অনুশীলন ছাড়াই খেলতে যাবেন সাকিব। তার ঘনিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, আজ বৃহস্পতিবার বাংলাাদেশ দল দুপুর ২টা নাগাদ রাজধানী ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পৌঁছালেও সেই বহরে ছিলেন না সাকিব। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার চট্টগ্রাম যাবেন আগামীকাল ৯ ডিসেম্বর সন্ধ্যায়।

এদিকে রাজধানী ঢাকা থেকে একই বিমানে চট্টগ্রাম গেছে ভারতীয় ক্রিকেট দলও। আগামীকাল শুক্রবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করবে দুই দল। শুক্রবার সন্ধ্যায় সাকিবের চট্টগ্রাম যাওয়ার অর্থ শেষ ওয়ানডের আগে একমাত্র অনুশীলন সেশনটি মিস করবেন তিনি।

এআরবি/এমএমআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।