ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ভারতীয় পেসার!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪৯ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩

ওয়ানডে ক্রিকেটে আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে বোলারদের তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছেন একজন ভারতীয় পেসার। তিনি মোহাম্মদ সিরাজ। যে দেশটি নিয়মিত নামকরা ব্যাটারদের জন্ম দেয়, সেখান থেকে একজন বোলার আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে উঠে আসা বিস্ময়করই বটে; কিন্তু গত একটি বছর নিয়মিত ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করে যাওয়ার কারণে এই উচ্চতায় উঠে এলেন সিরাজ।

ভারতীয় ওয়ানডে দলে ডাক পেয়েছিলেন ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে। এক ম্যাচ খেলার পরই ছিটকে পড়েন বাইরে। এরপর টানা তিন বছর ভ্রাত্য হয়ে থাকলেন তিনি। অবশেষে দলে ফিরলেন গত বছর ফেব্রুয়ারিতে।

ফিরেই ভারতের ওয়ানডে দলে নিজের জায়গা পাকাপোক্ত করে নেন সিরাজ। এরপর টানা দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে যাচ্ছেন তিনি। প্রায় এক বছরে ২০টি ম্যাচ খেলেছেন সিরাজ এবং উইকেট নিয়েছেন ৩৭টি।

সম্প্রতি ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অসাধারণ বোলিং করেছেন মোহাম্মদ সিরাজ। এই বোলিংয়ের সুবাধেই ট্রেন্ট বোল্ট এবং জস হ্যাজলউডকে পেছনে ঠেলে দিয়ে শীর্ষে উঠলেন সিরাজ। একই সঙ্গে ২৮ বছর বয়সী এই পেসার বুঝিয়ে দিলেন, তাকে উপেক্ষা করাটা ভুল ছিল ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের।

মঙ্গলবারই আইসিসি বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে জায়গা করে নিয়েছিলেন মোহাম্মদ সিরাজ। বুধবার এসে তার আনন্দে দ্বিগুণ মাত্রা যোগ করলো আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে ওঠার খবর।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন সিরাজ। এরপর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই নিয়েছিলেন ৪ উইকেট। এর ফলেই ৭২৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠলেন তিনি। জস হ্যাজলউডের রেটিং পয়েন্ট ৭২৭ এবং ট্রেন্ট বোল্টের রেটিং পয়েন্ট ৭০৮।

ব্যাটারদের তালিকায় পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমই রয়েছেন শীর্ষে। তার রেটিং পয়েন্ট ৮৮৭। দক্ষিণ আফ্রিকার রাশি ফন ডার ডুসেন ৭৬৬ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে। ৭৫৯ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে কুইন্টন ডি কক।

অলরাউন্ডারদের তালিকায় যথারীতি শীর্ষে সাকিব আল হাসান। তার রেটিং পয়েন্ট ৩৮৯। দ্বিতীয় স্থানে থাকা মোহাম্মদ নবির রেটিং পয়েন্ট ৩১০। তিন নম্বরে রয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার অর্জন ২৮৪ রেটিং পয়েন্ট।

আইএইচএস/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।