কোচের মেয়েকেই বিয়ে করলেন শাদাব খান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৪১ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩

পাকিস্তান এবং ভারতীয় ক্রিকেটে যেন বিয়ের দুম লেগেছে। একের পর এক বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন এই দুই দেশের তারকারা। সর্বশেষ বিয়ের মত শুভকাজ শেষ করলেন পাকিস্তানের সহ-অধিনায়ক শাদাব খান। যাকে বিয়ে করলেন, তিনিও কম যান না। খোদ কোচ সাকলায়েন মোস্তাকের মেয়ে সানা সাকলায়েনকেই বিয়ে করলেন তিনি।

গত একমাসে এ নিয়ে পাকিস্তানের তিনজন ক্রিকেটার বিয়ের কাজ সেরে ফেললেন। এর আগে বিয়ে করেছেন হারিস রউফ এবং শান মাসুদ।

অনেকটা চুপেচাপেই বিয়ে সারলেন শাদাব। বিশেষ কাউকেই আমন্ত্রণ জানাননি তিনি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দুই পরিবারের হাতে গোনা কয়েক জন ঘনিষ্ঠ মাত্র।

বিয়ে নিয়ে কোনো হইচই চাননি ২৪ বছরের স্পিন অলরাউন্ডার শাদাব খান। হইচই চাননি তার শ্বশুর সাকলায়েন মুস্তাকও। তবে বিয়ের পর এ তথ্যটা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেই জানান শাদাব।

তিনি লিখেছেন, ‘বিয়ের কাজ সেরে ফেললাম। এই দিনটা আমার জীবনে খুব বড়। জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করলাম। আশা করি আমার এবং স্ত্রী, পরিবারের পছন্দকে আপনারা সম্মান করবেন। সকলে আমাদের ভালবাসা নেবেন।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমার আদর্শ সাকি ভাইয়ের পরিবারের অংশ হতে পেরে ভাল লাগছে। যখন ক্রিকেট খেলতে শুরু করেছিলাম, তখন থেকেই পরিবারকে ক্রিকেট থেকে আলাদা রেখেছি। আমার পরিবারের সদস্যরা প্রচারের আলোয় থাকতে পছন্দ করেন না। আমার স্ত্রীও একই কথা বলেছেন। তিনিও জীবনের গোপনীয়তা রক্ষা করতে চান। প্রচারর মধ্যে আসতে চান না। সকলকে অনুরোধ করব, তাদের পছন্দকে সম্মান করার জন্য।’

এর পর মজা করে লিখেছেন, ‘এরপরও কেউ উপহার দিতে চাইলে তার অ্যাকাউন্টে আমার নম্বর পাঠিয়ে দেব।’

এতটাই নীরবে বিয়ের কাজ সেরেছেন যে, অনুষ্ঠানে সতীর্থদেরও আমন্ত্রণ জানাননি শাদাব। বাবর আজমদের আমন্ত্রণ জানাননি তাদের কোচও। যদিও শাদাব সামাজিক মাধ্যমে বিয়ের খবর প্রকাশ করতেই তার সতীর্থরা অভিনন্দন বার্তায় ভরিয়ে দিচ্ছেন।

মাঠের লড়াইয়ে প্রতিপক্ষের ক্রিকেটাররা শাদাবকে যথেষ্ট সমীহ করেন। সে কথা মনে করিয়ে দিয়ে ইমাম-উল হক লিখেছেন, ‘শ্যাডি (এই নামে ডাকেন সতীর্থরা) তোমাকে অনেক অভিনন্দন। তবে ভাবির জন্য একটু চিন্তা হচ্ছে। আল্লাহ ওকে শক্তি দিন।’ শাদাব এবং সানাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাধারণ ক্রিকেটপ্রেমীরাও।

আইএইচএস/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।