রিয়ালের মাথায় এখন শুধুই নেইমার!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২৯ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৮

শীতকালীণ দলবদল শুরু হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। নানা কাঠখড় পুড়িয়ে লিভারপুল থেকে এরই মধ্যে ফিলিপ কুতিনহোকে জয় করে নিয়েছে বার্সেলোনা। লা লিগায় তো এখনই অপ্রতিরোধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে বার্সা, তার ওপর কুতিনহোর যোগদান- অন্যদের সামনে অপরাজেয় হিসেবেই দাঁড়িয়ে যাবে লিওনেল মেসির দল। অন্যদিকে ১৬ পয়েন্ট পিছিয়ে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ কী করবে! দলবদলে কী চমক দেখাবে তারা! আগামী দিনের দলটাই বা কেমন হবে? এসব চিন্তা এবং জ্বল্পনা-কল্পনা পুরো মাদ্রিদজুড়ে। রিয়াল সমর্থকদের এসব চিন্তায় যেন চোখে ঘুম নেই।

তবে, মাদ্রিদভিত্তিক জনপ্রিয় পত্রিকা মার্কা জানিয়েছে, বড় কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে অপেক্ষা করছে রিয়াল মাদ্রিদ। আগামীদিনগুলোতে বড় একটা নড়চড়া দেখা যেতে পারে রিয়ালের ক্ষেত্রে। কী সেই বড় সিদ্ধান্ত! মার্কা জানাচ্ছে, নেইমারের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়ার সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছে লজ ব্লাঙ্কোজরা।

২০১৭ সালে ৫টি শিরোপা। সবাই ধরে নিয়েছিল রিয়ালের সাফল্যের বছর বুছি শুরু হলো। কিন্তু পরের মৌসুমেই দুর্ভাগ্যের দুর্বিপাকে ঘুরপাক খেতে শুরু করেছে জিদানের দল। অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে, সমর্থকরা এখনই ভাবতে শুরু করেছে, কে আছে এমন যে এই পরিস্থিতি থেকে দলকে উদ্ধার করতে পারে! শীতকালীন দলবদলে ক্লাবে এমন কাকে নিয়ে আসছে!

রিয়ালের কৌশলগত সিদ্ধান্তটা হচ্ছে এমন যে, শুধুমাত্র মাঠের পারফরমারই নিয়ে আসা নয়, একই সঙ্গে আর্থিক বিষয়াদিও মাথায় থাকবে। তবে, ক্লাবের চিন্তা, ২০০০ সালের যে মডেল তাদের হাতে রয়েছে সেটাইকেই অনুসরণ করবে। সে ক্ষেত্রে কোনো মেগাস্টারকেই দলে ভেড়ানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ক্লাব কর্মকর্তারা। গ্যালাক্টিকোর যে উপাদান, তাতে আপাতত অনেকটাই ভাটা পড়েছে। ভাটা পড়া সেই উপাদানই সংযোজন করতে চায় তারা।

তাহলে সেই মেগাস্টার কে? ক্লাবের সমর্থক থেকে শুরু করে কর্মকর্তা- তাদের সবার মাথায়ই এখন একমাত্র মেগাস্টার হিসেবে নেইমার ছাড়া আর কারো নাম নেই। রিয়াল মাদ্রিদকে এই বাজে পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার করতে হলে নেইমারই পারবেন কেবল পারবেন সেটা।

ইতিমধ্যেই ক্লাব কিন্তু অনেক পরীক্ষা-নীরিক্ষা চালিয়েছে। চিন্তা-ভাবনা করেছে। এমনকি তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়েও চিন্তা করেছে। যার মধ্যে রয়েছেন ব্রাজিলের ভিনিসিয়াস জুনিয়র। একদিন হয়তো তিনি মেগাস্টার হবেন। এমনকি হয়তো অন্য সবাইকে পেছনে ফেলে তিনি বিশ্বসেরাও হয়ে যাবেন; কিন্তু গ্যালাক্টিকোর শূন্যস্থান পূরণে সে ধরনের ক্যালিবার রয়েছে এমন খেলোয়াড়কেই তো চাই রিয়ালের! ২০১৪ সালে হামেস রদ্রিগেজের পর তো গ্যালাক্টিকোয় আর কেউ যুক্তও হয়নি।

এরই মধ্যে কৌশলগতভাবে রিয়াল চেয়েছিল কাইলিয়ান এমবাপেকে দলে নিতে। কিন্তু তাদের সিদ্ধান্তহীনতা এবং গড়িমসির সুযোগে তরুণ এই ফরাসী ফুটবলারকে লুফে নিয়েছে পিএসজি। যে কারণে রিয়ালের সামনে তালিকাটা আরও ছোট হয়ে এসেছে। অন্যদিকে আর্থিক চিন্তাও বাড়ছে ক্লাব কর্মকর্তাদের মাথায়। বড় কোনো খেলোয়াড়, সেটা একজন হোক কিংবা দু’তিনজন- তাদেরকে দলে নিতে কমকরে হলেও পুরো প্রক্রিয়ার জন্য ৪০০ মিলিয়ন ইউরো প্রয়োজন।

এমবাপে হাতছাড়া হওয়ার পর রিয়ালের তৈরি করা তালিকায় রয়েছেন হ্যারি কেন, ইডেন হ্যাজার্ড এবং টিমো ওয়ার্নার; কিন্তু সমস্যা হলো, এদের কেউই নেইমারের লেভেলের নন। নেইমারকে যদি দলে নেয়া যায় তাহলে লুই ফিগোকে নেয়ার মতই বার্সেলোনাকে একটা বড় ধাক্কা দেয়া যাবে।

রিয়াল মাদ্রিদ এখনও নেইমারের ব্যাপারে কোনো প্রস্তাব দেয়নি। পিএসজির মনোভাব না জেনে তারা প্রস্তাব দেবেও না বলে জানা যাচ্ছে। রিয়াল ধরেই নিচ্ছে, পিএসজি এই মুহূর্তে নেইমারকে বিক্রি করতে চাইবে না। তাহলে কী করতে হবে? সে পরিকল্পনা আপাতত সাজিয়ে ফেলেছে লজ ব্লাঙ্কোজরা। পিএসজিতে এমন প্রস্তাব দিতে হবে, যেটাকে তারা কোনোভাবেই ফেলতে পারবে না। কী সেটা? ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। যাকে দীর্ঘদিন ধরেই ক্লাবে পেতে চায় পিএসজি।

অথ্যাৎ, রোনালদোকে বিনিময় করবে রিয়াল, শুধুমাত্র নেইমারকে পেতে! মার্কার রিপোর্ট মতে, আপাতত তেমনই ভাবছে রিয়াল মাদ্রিদ। মার্কা এমন এক পত্রিকা, যাদেরকে বলা হয় রিয়ালের মুখপত্র। সুতরাং, তাদের এই রিপোর্টের যতার্থ নির্ভরযোগ্যতা রয়েছে। কিন্তু শুধুমাত্র রোনালদোকে বিনিময় করাই নয়, রিয়ালের মাথায় আরও একটি বিষয় ঘুরপাক খাচ্ছে। সেটা হলো, ব্যক্তি নেইমার আসতে চান তো রিয়ালে?

নেইমার যদি নিজেই আসতে না চায়, তাহলে বিনিময়ের প্রস্তাব দিয়ে কী লাভ! যদিও রিয়াল কর্মকর্তারা ধরে নিয়েছেন, নেইমার রিয়ালে আসতে ইচ্ছুক। এর কিছু ইঙ্গিত তারা পেয়েছেও। যেমন, লন্ডনে ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে রিয়াল ডেলিগেটদের খুব কাছাকাছি বসেছিলেন নেইমার। আবার গুঞ্জন ছিল, রিয়ালের একজন দূতকে দেখা গেছে নেইমারের সঙ্গে তার ছুটিকালীন সময়ে দেখা করতে। আরও একটা গুঞ্জন আছে, রিয়ালের সঙ্গে এক ধরনের সমঝোতা হয়েই আছে নেইমারের।

রিয়াল মাদ্রিদ ইতিমধ্যেই ২০০ মিলিয়ন ইউরো পকেটে নিয়ে হাঁটছে নেইমারকে কেনার জন্য। ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত রয়েছে শীতকালীন দলবদলের সময়। এরই মধ্যে কিছু একটা ঘটেও যেতে পারে। তবে এ পর্যায়ে এসে বলা যায়, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ক্যারিয়ার অন্য যে কোনো সময়ের তুলনায় অনেক বেশি মেঘাচ্ছন্ন।

আইএইচএস/পিআর