রাসেলকে বিধ্বস্ত করে সেমিতে চট্টগ্রাম আবাহনী

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৩৪ পিএম, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনীতে পূরণ হলো স্বাধীনতা কাপ ফুটবলের সেমিফাইনালবৃত্ত। শেষ দল হিসেবে চট্টলার আকাশী-হলুদরা সেমিফাইনালে উঠেছে শেখ রাসেলকে বিধ্বস্ত করে। শনিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শেষ কোয়ার্টার ফাইনালে চট্টগ্রাম আবাহনী ৪-২ গোলে হারিয়েছে সাবেক চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে। সেমিফাইনালে চট্টগ্রাম আবাহনীর প্রতিপক্ষ রহমতগঞ্জ। আরেক সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে শেখ জামাল ও আরামবাগ।

সাবেক ও বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের সেমিফাইনালে ওঠার ম্যাচটি প্রথমার্ধেই নিজেদের করে নেয় চট্টগ্রাম আবাহনী। ৪-১ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যাওয়া শেখ রাসেল দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের গোল দ্বিগুণ করতে পারলেও ম্যাচে ফেরার মতো অবস্থা তৈরি করতে পারেনি। মৌসুমের প্রথম টুর্নামেন্টে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল শেখ রাসেল, একই মঞ্চ থেকে বিদায় নিলো স্বাধীনতা কাপ থেকেও। দলটির কোচ সফিকুল ইসলাম মানিকের ম্যাচ শেষে দীর্ঘশ্বাস-‘একটা বাজে মৌসুম কাটলো আমাদের।’

শুক্রবার আবাহনী উড়ে গিয়েছিল আরামবাগের দ্বিতীয়ার্ধের ঝড়ে, শনিবার প্রথমার্ধেই শনির দশা লাগে শেখ রাসেলের। নবম মিনিটে তৌহিদুল আলম সবুজের গোলে চট্টগ্রাম আবাহনী এগিয়ে গেলেও তিন মিনিট পরই ম্যাচে ফেরে শেখ রাসেল। নয়নের সমতা সূচক গোলের পর একটা জমজমাট লাড়ইয়ের বাতাসই বইছিল; কিন্তু চট্টগ্রাম আবাহনী সে বাতাসকে ঝড়ে পরিণত করে ৪-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় মধ্য বিরতিতে।

১৮ মিনিটে জুয়েল রানা ও ৪৩ মিনিটে ফ্রি কিক থেকে আবদুল্লাহর দর্শনীয় গোলের পর রাসেলকে ম্যাচে ফেরা কঠিন করে দেন সাখাওয়াত রনি। মৌসুমের প্রথম গোল পাওয়া রনির করা ৪-১ ব্যবধান ধরে রেখে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করে চট্টগ্রাম আবাহনী। শেষার্ধে চট্টগ্রাম আবাহনী আর গোলমুখ খুলতে পারেনি রাসেলের। শেখ রাসেলের জাভেদ ৭৪ মিনিটে গোল করে হারের ব্যবধান কমিয়ে আনেন ৪-২ এ।

আরআই/আইএইচএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :