‘মেসির ফিটনেস নিয়ে চিন্তার কারণ নেই আর্জেন্টিনার’

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৯ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৮
‘মেসির ফিটনেস নিয়ে চিন্তার কারণ নেই আর্জেন্টিনার’

মৌসুমের শেষ দিকে এসে হালকা-পাতলা ইনজুরি সমস্যায় পড়তে শুরু করেছেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি লিওনেল মেসি। চেলসি কিংবা এএস রোমার বিপক্ষে তার কম দৌড়ানোই এর বড় প্রমাণ। এমনকি ইনজুরির কারণে আর্জেন্টিনার হয়ে ইতালি এবং স্পেনের বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচে খেলতেই পারেননি তিনি।

মেসি খেলতে না পারার কারণে স্পেনের কাছে ৬-১ গোলে হারতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। সামনে যেহেতু বিশ্বকাপ, সুতরাং মেসির ইনজুরির খবরে দারুণ চিন্তিত তার দেশ আর্জেন্টিনা। এই সময়ে এসে যদি দলের মূল খেলোয়াড়ই ইনজুরিতে পড়ে মাঠের বাইরে চলে যান, তাহলে তো পুরো বিশ্বকাপই শেষ তাদের।

সম্ভবত আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে গোপনে বার্সেলোনার কাছে বার্তাও পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে এ সম্পর্কে। সেই বার্তার জবাবেই প্রকাশ্যে কথা বললেন বার্সেলোনা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে। তিনি আর্জেন্টিনাকে সরাসরি জানিয়ে দিলেন, মেসির ফিটনেস নিয়ে তাদের চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

ইনজুরির কারণে দেশের হয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলতে পারেননি মেসি। এরপর ক্লাবে ফিরে ইনজুরি নিয়েও বার্সার হয়ে সর্বশেষ ৫ ম্যাচে খেলেছেন তিনি। যার মধ্যে চারটিতেই খেলেছেন ম্যাচের শুরু থেকে। এর মধ্যে এএস রোমার বিপক্ষে খেলতে নেমে কোনো লেগেই গোল করতে পারেননি আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। সিরিএ’র দলটির বিপক্ষে মেসির পারফরম্যান্সই দারুণ চিন্তিত করে তুলেছে আর্জেন্টিনাকে।

মেসির অবস্থা যাই হোক, বার্সেলোনার ব্যস্ত সূচি রয়েছেই। বুধবারই তারা যাবে সেল্টা ভিগোর মাঠে খেলতে। এরপর আগামী শনিবার রয়েছে সেভিয়ার বিপক্ষে কোপা ডেল রে ফাইনাল। তবে ফাইনালকে মাথায় রেখে সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে মেসিকে বিশ্রাম দিতে পারেন কোচ ভালভার্দে। একই সঙ্গে তিনি আর্জেন্টিনাকেও জানিয়ে দিয়েছেন, মেসির ফিটনেস নিয়ে তাদের চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

ভালভার্দে বলেন, ‘(সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে) তাকে বিশ্রাম দেয়ার সম্ভাবনা বেশি। যেমনটা অন্য খেলোয়াড়দের সম্পর্কেও করা হয়। তবে মেসিকে নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। অন্যদিনের চেয়ে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে দারুণ খেলেছে সে। এর চেয়ে আর বালো কী বলতে হবে আমার জানা নেই। তবে আমি আর্জেন্টিনাকে বলবো, তারা রিলাক্স থাকতে পারে। বিশ্বকাপের আগে এখনও অনেক লম্বা সময় বাকি।’

বার্সেলোনার হয়ে এই মৌসুমে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন মেসি। মোট ৪৮ ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ৩৯টি। সব মিলিয়ে মিস করেছেন মোট চারটি ম্যাচ। এর মধ্যে তিনটি ছিল কোপা ডেল রে’র শুরুর দিকে এবং একটি ছিল লা লিগায় মালাগার বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে। ওই ম্যাচের দিনই তৃতীয় সন্তানের জনক হয়েছিলেন মেসি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায়ের পর বার্সার সামনে এই মৌসুমে আর মাত্র ৭টা ম্যাচ বাকি। ৬টা লিগ ম্যাচ এবং অন্যটি কোপা ডেল রে’র ফাইনাল। লা লিগার শিরোপা জিততে হলে আর মাত্র ৭ পয়েন্ট প্রয়োজন বার্সার। তাহলেই শেষ ১০ বছরের মধ্যে ৭টি লিগ শিরোপা ঘরে উঠবে কাতালানদের। একই সঙ্গে তাদের সামনে দারুণ সুযোগ পুরো লিগে অপরাজিত থাকার। সেটা হলে বার্সা হবে প্রথম দল, যারা এই কৃতিত্ব অর্জন করবে। লা লিগায় বার্সার সর্বশেষ ম্যাচ ২০ মে। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা মাঠে নামার অন্তত এক মাস আগে পুরোপুরি ফ্রি হয়ে যাবেন মেসি।

আইএইচএস/পিআর