এমন ভুল হতেই পারে : ডি গিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২০ পিএম, ১৬ জুন ২০১৮

স্পেন-পর্তুগাল হাইভোল্টেজ ম্যাচ। স্বাভাবিকভাবেই এমন ম্যাচে তুমুল চাপে থাকেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। এ ধরনের পরিস্থিতিতে কোনো দল যদি শুরুতেই পেনাল্টি পেয়ে এগিয়ে যায়, তাহলে প্রতিপক্ষ দলের কী অবস্থা হয় তা সহজেই অনুমেয়। কিন্তু স্পেন এমন একটি দল, যারা মাত্র ২ মিনিটে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পেনাল্টি থেকে গোল হজম করে বসলেও ম্যাচ থেকে হারিয়ে যায়নি। বরং, দোর্দণ্ড প্রতাপে ফিরে এসেছে এবং দিয়েগো কস্তার অসাধারণ এক গোলে ২৪ মিনিটের মাথায় সমতায় ফিরে এসেছে।

দু’দলের খেলা যখন ১-১ গোলে সমতায় প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার অপেক্ষায়, তখনই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সামনে অমার্জনীয় এক ভুল করে বসেন স্পেন গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পোস্টের নিচে গত সাত বছর দাঁড়াচ্ছেন। অত্যন্ত পরীক্ষিত গোলরক্ষক। তার কাছ থেকে এমন শিশুসূলভ কিপিং কেউ আশা করেনি।

De giaম্যাচের ৪৪ মিনিটে রোনালদোর দুর্দান্ত গতির একটি শট সোজা ডি গিয়ার হাতে চলে যায়। হাঁটুগেড়ে বসে হাতের তালুতে বলটা নিয়েছিলেনও তিনি। কিন্তু দুর্ভাগ্য, শটের গতি এতটাই বেশি ছিল যে, তিনি সেটি আর হাতের মধ্যে জমিয়ে রাখতে পারেননি। হাত থেকে ফসকে গিয়ে চলে যায় জালে। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই ২-১ গোলে এগিয়ে যায় পর্তুগাল।

শেষ পর্যন্ত ম্যাচ ড্র হলো ৩-৩ গোলে। রোনালদো করলেন দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক। এই বিশ্বকাপে প্রথম তো বটেই, বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি বয়সী হিসেবে হ্যাটট্রিক করার রেকর্ডও গড়লেন তিনি।

ম্যাচ শেষ হওয়ার পর স্পেনজুড়ে চলছে ডি গিয়ার মুণ্ডুপাত। তার অমার্জনীয় ভুলেই যে জয় পেলো না স্পেন! যদিও ম্যাচ শেষে নিজের এই ভুলের স্বপক্ষে সাফাই গাইলেন ডি গিয়া নিজে। তিনি বললেন, ‘ওটা ছিল একটা ভুল এবং এ ধরনের ভুল এমন ম্যাচে হতেই পারে। এগুলো তো খেলারই অংশ।’

কেন সেই বলটি ধরে রাখতে পারলেন না ডি গিয়া? এর জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি মাটিতে হাঁটু ফেলতে খানিক বিলম্ব করে ফেলেছিলাম এবং বলটা বাউন্স করছিল। যে কারণে ধরে রাখতে পারিনি। আর আমি তো কাউকে হত্যা করিনি!’

সমর্থকদের কাছ থেকে সমালোচনা পেলেও কোচ এবং সতীর্থদের পাশেই পাচ্ছেন ডি গিয়া। তিনি বলেন, ‘কোচ আমার সঙ্গে রয়েছেন। এমনকি দলের সব খেলোয়াড়। আমি নিজেও শান্ত রয়েছি। এটা ছিল একটা ভুল। এমন ভুল হতেই পারে। বলটা তো ছিল সত্যিই কঠিন।’

সামনের ম্যাচগুলোতে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী ডি গিয়া। তিনি বলেন, ‘আমি অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি, সামনের ম্যাচগুলোতে আরও অনেক ভালো করতে পারবো। ইরানের বিপক্ষে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। সামনে এগিয়ে যেতে হলে ওই ম্যাচের জয় ছাড়া বিকল্প নেই আমাদের সামনে।’

আইএইচএস/

আপনার মতামত লিখুন :