এবার থাইল্যান্ডে চোখ মারিয়া-আঁখি-তহুরাদের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বাংলাদেশের প্রথম লক্ষ্য পূরণ হয়েছে বাছাইয়ের প্রথম পর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে। রোববার গ্রুপের শেষ ম্যাচে ভিয়েতনামকে ২-০ গোলে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েই দ্বিতীয় রাউন্ডে বাংলাদেশের মেয়েরা। এবার চূড়ান্ত পর্বে ওঠার মিশন।

বাছাই পর্বের ২৯ দেশের মধ্যে সেরা আটে এখন বাংলাদেশ। প্রথম পর্ব টপকে যাওয়া বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া, লাওস, চীন, ইরান, মিয়ানমার, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইনকে নিয়ে হবে দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রতিযোগিতা। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলার পর চার দল উঠবে চূড়ান্ত পর্বে। দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা কোথায় হবে এখনো ঠিক হয়নি। তবে খেলার সময় নির্ধারণ হয়ে আছে আগামী বছর ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩ মার্চ।

দ্বিতীয় পর্বের সেরা চারের সঙ্গে চূড়ান্ত পর্বে সরাসরি খেলবে উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও থাইল্যান্ড। এর মধ্যে প্রথম তিন দল গত আসরের চ্যাম্পিয়ন, রানার্সআপ ও তৃতীয়। থাইল্যান্ড চূড়ান্ত পর্বের আয়োজক।

এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের সাফল্য নতুন নয়। গত আসরেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে চূড়ান্ত পর্বে উঠেছিল। তবে এবার চূড়ান্ত পর্বের উঠতে পার হতে হবে আরেক ধাপ। বাংলাদেশের মেয়েরা থাইল্যান্ডে চোখ রেখেই শুরু করবে দ্বিতীয় পর্বের প্রস্তুতি।

৬ গ্রুপের মধ্যে মধ্যে বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া ও চীন পূর্ণ ১২ নিয়ে প্রথম পর্ব টপকে দ্বিতীয় পর্বে উঠেছে। ৪ ম্যাচে বাংলাদেশ করেছে ২৭ গোল। কোনো গোল হজম করেনি। প্রথম পর্বে গোল হজম না করা অন্য চার দল চীন, ইরান, থাইল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া।

বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র দল হিসেবে মেয়েদের এই টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্বে উঠেছে। ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলংকা বিদায় নিয়েছে প্রথম পর্ব থেকেই।

প্রথম লক্ষ্য পূরণ হওয়ায় শুকরিয়া আদায় করে মারিয়া, আঁখি, তহুরাদের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেন, ‘মেয়েরা দীর্ঘদিন যে কঠোর পরিশ্রম করেছে তারই ফল এটা। আমাদের লক্ষ্য ছিল ম্যাচ বাই ম্যাচ জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া। মেয়েরা নিজেদের মতো করে খেলেই এ সাফল্য এনেছে। এখন আমাদের লক্ষ্য থাইল্যান্ডে খেলার যোগ্যতা অর্জন করা। আমাদের ভুটানে অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ আছে। আমরা এই টুর্নামেন্ট শেষে ৮ অক্টোবর থেকে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রস্তুতি শুরু করবো।’

এক নজরে প্রথম রাউন্ডে বাংলাদেশ
বাংলাদেশ-১০ : বাহরাই-০
বাংলাদেশ-৮ : লেবানন-০
বাংলাদেশ-৭ : আরব আমিরাত-০
বাংলাদেশ-২ : ভিয়েতনাম-০

বালাদেশের গোলদাতারা
৫ টি : আনুচিং মগিনি।
৪ টি : শামসুন্নাহার (ছোট)।
৩টি : তহুরা খাতুন, আনাই মগিনি ও সাজেদা খাতুন।
২টি : মারিয়া মান্ডা ও শামসুন্নাহার (বড়)।
১টি : আখি, ইলামনি ও রোজিনা আক্তার।
২টি প্রতিপক্ষের আত্মঘাতি : মারিয়া স্লিম (লেবানন) ও আলিয়া হুমাইদ (আরব আমিরাত)

আরআই/আইএইচএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :