ছয় ম্যাচের চারটিতেই আত্মঘাতি গোল ব্রাদার্সের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:১০ পিএম, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ব্রাদার্সের মাঠে নামা মানেই যেন একটি করে আত্মঘাতি গোল খাওয়া। এবারের প্রিমিয়ার ফুটবলে যেন এটা নিয়মই করে ফেলেছে কমলা জার্সিধারীরা। এখনও পর্যন্ত ৬ ম্যাচ খেলে তারা জিতেছে কেবল একটি ম্যাচে। হারা ৫ ম্যাচের চারটিতেই খেয়েছে আত্মঘাতি গোল। নিজেদের জালে বল পাঠানো যেন গোপীবাগের দলটির খেলোয়াড়দের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে।

সৈয়দ নাইমুদ্দিনের দল একটি ম্যাচ জিতেছে মোহামেডানের বিরুদ্ধে ১-০ গোলে। হেরেছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের বিরুদ্ধে ৩-২ গোলে, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের বিরুদ্ধে ২-১ গোলে, চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে ৩-২ গোলে, শেখ জামালের কাছে ১-০ গোলে ও সর্বশেষ রোববার আবাহনীর কাছে ৪-০ গোলে।

এই পাঁচ ম্যাচের মধ্যে শেখ রাসেলের বিরুদ্ধে ম্যাচে ব্রাদার্সের আত্মঘাতি গোল করেছেন আশরাফুল করিম, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের বিরুদ্ধে ম্যাচে মো. সজল ও চট্টগ্রাম আবাহনী বিরুদ্ধে ম্যাচে সফিকুল এবং সর্বশেষ রোববার আবাহনীর বিরুদ্ধে উত্তম রায়।

এভাবে আত্মঘাতি গোল খাওয়াকে ডিফেন্ডারদের অসর্তকতা হিসেবে উল্লেখ করেছেন ব্রাদার্স ইউনিয়নের ম্যানেজার ও সাবেক ফুটবলার আমের খান। ‘আমরা আসলে যে ৬ ম্যাচ খেললাম তার মধ্যে বেশিরভাগই অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী। আমাদের তরুণ খেলোয়াড়রা মাঠে নেমেই কিছু একটা করতে হবে- মনে করে খেলা শুরু করে। আর ভুল করতে থাকে। রক্ষণভাগে সমন্বয় নষ্ট হয়। আর অসতর্কতার কারণে আত্মঘাতি গোল খায়। ৬ ম্যাচের চারটিতেই আত্মঘাতি গোল খাওয়া খারাপ লক্ষণ। এ গোলগুলো দলের আত্মবিশ্বাসেও ফাটল ধরায়।’

আরআই/আইএইচএস/পিআর