থাইল্যান্ডে চোখ রেখে মিয়ানমার যাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দল

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৩৭ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দলের সামনে আরেকটি সাফল্যের হাতছানি। দুই বছর আগে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্বে খেলে আলোড়ন সৃষ্টি করা মেয়েরা সে সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার মিশনে শনিবার মিয়ানমার যাচ্ছে।

মিয়ানমারে হবে বাছাই পর্বের দ্বিতীয় রাউন্ড। এ বাধা পার হতে পারলে বাংলাদেশের মেয়েরা পাবে সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য চূড়ান্ত পর্বের টিকিট। মারিয়া মান্ডা আর আঁখি খাতুনরা থাইল্যান্ডে চোখ রেখেই যাচ্ছেন মিয়ানমার।

বাংলাদেশের মেয়েরা মিয়ানমারের টিকিট পেয়েছে গত বছর সেপ্টেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত বাছাইয়ের প্রথম পর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে। বাহরাইন, লেবানন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ভিয়েতনামকে হারিয়ে দ্বিতীয় পর্বে ওঠা লাল-সবুজ জার্সিধারী মেয়েদের সামনে এবার চীন, ফিলিপাইন ও স্বাগতিক মিয়ানমার। চার দলের লড়াইয়ে প্রথম দুইয়ে থাকতে পারলেই টানা দ্বিতীয়বারের মতো চূড়ান্ত পর্বে উঠবে বাংলাদেশ।

মিয়ানমারে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচে ২৭ ফেব্রুয়ারি ফিলিপাইনের বিরুদ্ধে। ১ মার্চ স্বাগতিকদের মুখোমুখি হবে মারিয়া-আঁখিরা। শেষ ম্যাচ ৩ মার্চ চীনের বিরুদ্ধে। তিন প্রতিপক্ষের মধ্যে চীন ও ফিলিপাইন একেবারেই নতুন বাংলাদেশের সামনে। মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আগে সিনিয়র পর্যায়ে খেলেছেন বাংলাদেশের মেয়েরা।

বাংলাদেশ নারী ফুটবলের প্রধান কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেছেন, ‘আমাদের লক্ষ্য চূড়ান্ত পর্ব। আমরা ভালো ফুটবল খেলেই দ্বিতীয় পর্বে উঠেছি। মেয়েরা প্রাকটিস ও খেলার মধ্যে ছিল। আশা করি মিয়ানমারেও দেশবাসীকে ভালো কিছু উপহার দিতে পারবো।’

টুর্নামেন্টের আগের আসরে বাছাই ছিল এক পর্বে। দল বেড়ে যাওয়ায় এবার হচ্ছে দুই ধাপে। এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবেই দেখছেন মারিয়াদের কোচ, ‘এটা কঠিন চ্যালেঞ্জই। কারণ, সবাই শক্তিশালী। আমাদের মেয়েরাও ভালো পারফরম্যান্স করছে। আমরা গ্রুপসেরাই হতে চাইবো।’

আরআই/আইএইচএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :