কঠিন শাস্তিই পেতে যাচ্ছেন নেইমার

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:১১ পিএম, ২৩ মার্চ ২০১৯

ইনজুরির কারণে খেলতে পারছেন না পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। ১০ সপ্তাহ মাঠের বাইরে কাটাতে হচ্ছে তাকে। তবুও, মাঠের খেলার জন্য কঠোর শাস্তি পেতে যাচ্ছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই তারকা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে ফিরতি লেগে ম্যানইউর কাছে হেরে বিদায় নিতে হয় পিএসজিকে। প্রথম লেগে ২ গোলে এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয় লেগে নিজেদের মাঠে ৩ গোল হজম করেই সর্বনাশ ঘটে ফরাসি ক্লাবটির। ওই ম্যাচের শেষ দিকে পেনাল্টি থেকে গোল করে পিএসজির বিদায় নিশ্চিত করেন ম্যানইউর মার্কাস রাশফোর্ড।

ভিএআরের মাধ্যমে পিএসজির বিপক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। গ্যালারির ভিআইপি বক্সে বসা নেইমার সেই পেনাল্টি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেননি। ম্যাচের সময়ই এ নিয়ে তাকে অস্বস্তি প্রকাশ করতে দেখা গেছে এবং ম্যাচের পর ইনস্টাগ্রামে ভিএআর এবং পেনাল্টির বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দেন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা।

ইনস্টাগ্রামে তিনি লিখেন, ‘এটা খুবই কলঙ্কজনক একটি অধ্যায়, এটা অন্যায়। চার ব্যক্তি, যারা ফুটবল নিয়ে কোনো কিছুই জানে না। তারা কি না টিভির সামনে বসে স্লো মোশনে দেখলো আর পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দিয়ে দিলো! এটা তো পেনাল্টিই ছিল না। নাথিং। কিম্বাপ্পে (প্রেসনেল) যখন নিজের হাতটি পেছন দিকে সরিয়ে নিচ্ছিলেন, তখন তিনি কি করতে পারতেন বল থেকে সেটা বাঁচানোর জন্য? কোন নিয়মে এটা হ্যান্ডবল হয়? (এরপর একটি গালিও দেন নেইমার)।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসে এ বিষয়টা নিয়ে এভাবে সরাসরি অভিযোগ তুলে খুবই অশ্লীল ভাষায় এমন আক্রমণ করার বিষয়টা সহজভাবে নেয়নি ইউরোপিয়ান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা উয়েফা। তারা আগেই জানিয়েছিল, এ নিয়ে তদন্ত করবে। এবার সত্যি সত্যি যে তদন্ত করা হচ্ছে এবং নেইমারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হলো, সেটা জানিয়ে দিয়েছে উয়েফা।

৬ মার্চ ওই ঘটনার পর তদন্তে নামে উয়েফা। নেইমারের কৃতকর্মের কারণে নিয়োগ করা হয় একজন ইনভেস্টিগেট ইন্সপেক্টর। তার তদন্তের ভিত্তিতেই শুক্রবার ব্রাজিলিয়ান তারকাকে অভিযুক্ত করল উয়েফা। দিন ধার্য না হলেও উয়েফার এথিক্স এবং ডিসিপ্লিনারি কমিটিতে শীঘ্রই হবে এই মামলার শুনানি। সেখানেই ঘটনার গুরুত্ব বিচার করে নেইমারের বিরুদ্ধে শাস্তি ঘোষণা করবে উয়েফা। সেক্ষেত্রে কয়েকটি ম্যাচ ব্যান কিংবা বড় অংকের জরিমানার সম্মুখীন হতে পারেন ব্রাজিলিয়ান তারকা।

উয়েফা জানিয়েছে, ‘ম্যাচ কর্মকর্তাদের নিয়ে অপমানজনক এবং অগ্রহণযোগ্য কথা-বার্তা বলার কারণে উয়েফার খেলোয়াড় আচরণবিধির অনুযায়ী কন্ট্রোল, এথিক্স এবং ডিসিপ্লিনারি কমিটির মুখোমুখি হতে হবে।’ তবে কবে সেই শুনানি অনুষ্ঠিত হবে, সেটা এখনও ঠিক করা হয়নি।

আইএইচএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :