ঘরের টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার প্রত্যাশা মৌসুমীদের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:১৩ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৯

আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে খেলা বাংলাদেশের মেয়েদের জন্য নতুন কিছু নয়; কিন্তু সোমবার ঢাকায় শুরু হতে যাওয়া বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ নামে যে টুর্নামেন্টটি শুরু হতে সেখানে খেলার মধ্যে দিয়ে নতুন অভিজ্ঞতা হতে যাচ্ছে মৌসুমী-মারিয়াদের। ফিফা-এএফসির বাইরে বাফুফের নিজস্ব আয়োজনে হচ্ছে মেয়েদের এই টুর্নামেন্ট। কেবল বাংলাদেশেই নয়, দক্ষিণ এশিয়াতেই মেয়েদের এ ধরণের টুর্নামেন্ট নতুন।

সাফ হোক বা এএফসি-বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট মানেই বাংলাদেশের মেয়েদের সাফল্যের রূপকথা। এটা বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট বলেই প্রত্যাশাটাও একটু বেশি। শনিবার দল ঘোষণার পর সে প্রত্যাশার কথাই শুনিয়েছেন মেয়েদের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন ও অধিনায়ক মিসরাত জাহান মৌসুমী।

সংবাদ সম্মেলনে বাফুফের মহিলা কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ বলেছেন, ‘আমাদের মেয়েদের যে অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা তাতে নতুন মাত্রা যোগ হবে এই বঙ্গমাতা গোল্ডকাপে। আমার বিশ্বাস এ টুর্নামেন্ট দিয়ে মেয়েরা সামনের দিকে আরো এগিয়ে যাবে। আমাদের লক্ষ্য ম্যাচ বাই ম্যাচ জিতে এগিয়ে যাওয়া।’

ঘরের মাঠের নতুন এ টুর্নামেন্টে নিজ দল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন, ‘মেয়েরা ধারাবাহিকভাবে অনুশীলনের মধ্যেই আছে। ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০ মার্চের মধ্যে আমরা দু’টি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছি। সেই অভিজ্ঞতাগুলো এই টুর্নামেন্টে আমাদের অনেক কাজে আসবে। সেখানে আমাদের যে ভুল ত্রুটিগুলো ছিলো তা নিয়ে কাজ করা হয়েছে।’

কোচ ছোটন আরো জানালেন, ‘আমরা প্রথমত গ্রুপের ম্যাচগুলোতে জিততে চাই। এরপর সেমিফাইনাল জিতে ফাইনালে খেলতে চাই। টুর্নামেন্টটিকে স্মরণীয় করে রাখতে ঘরের ট্রফি ঘরেই রাখতে চাই আমরা। মেয়েরা ট্যাকটিক্যালি এবং ট্যাকনিক্যালি কতটা উন্নতি করেছে সেটি তো আপনারা মাঠেই দেখেছেন।’

অধিনায়ক মিশরাত জাহান মৌসুমী বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর মায়ের নামে টুর্নামেন্ট। সেটি স্মরণীয় করে রাখার জন্য ট্রফি জিততে চাই। আমাদের ভালো প্রস্তুতি হয়েছে। দলের সবাই সুস্থ আছে। আমরা যেনো ভালো ফলাফল উপহার দিতে পারি সে জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।’

সহকারী অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা বলেছেন, ‘নেপাল ও মিয়ানমারে আমাদের যে ভুলভ্রান্তি ছিলো সেগুলো শুধরে নিয়ে উন্নতি করেছি। টুর্নামেন্টে আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ এগুতে চাই।’

জাতীয় দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন ছাড়া মূলতঃ গত মাসে নেপালে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলা দলটিই আছে এখানে। নতুন করে যুক্ত হয়েছেন তিনজন- নাজমা, সাজেদা ও সুলতানা।

আরআই/আইএইচএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :