সালাহ-মানেদের রোজা রাখায় আপত্তি নেই লিভারপুল কোচের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩০ পিএম, ৩০ মে ২০১৯

চলছে রমজান মাস। সিয়াম সাধনার এই মাসে ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে রোজা রাখছেন পৃথিবীর সব প্রান্তের মুসলিমরা। ব্যতিক্রম নয় ক্রীড়াঙ্গনেও। খেলার ব্যস্ততা থাকলেও রোজা রাখায় কোন আপস করছেন না মোহামেদ সালাহ, সাদিও মানের মতো আরো মুসলিম খেলোয়াড়রা।

আগামী ২ জুন উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হবে লিভারপুল ও টটেনহ্যাম। সেই ম্যাচ সামনে রেখে রোজা পালন করেই অনুশীলন করছেন অলরেডদের দুই তারকা ফুটবলার সালাহ ও মানে। রোজা রেখে অনুশীলন করা শরীরের জন্য কঠিন হলেও তা নিয়মিতই করে যাচ্ছেন তারা।

তাদের এই ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলাকে ইতিবাচক দিক হিসেবেই দেখছেন লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। রোজা রেখে সালাহ ও মানের অনুশীলন নিয়ে ক্লপ বলেন, ‘খেলোয়াড়দের রোজা রাখা নিয়ে আমার কোনো সমস্যা নেই। আমি তাদের ধর্মকে শ্রদ্ধা করি। রোজা রাখুক আর না রাখুক তারা সবসময়ই অসাধারণ। প্রার্থনার কারণে তারা কিছুদিন ধরে দেরি করে অনুশীলনে আসছে। কিন্তু এতে আমার সমস্যা নেই। কারণ ফুটবলের থেকেও আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ জিনিস আছে।’

রোজা রাখলেও পূর্ণশক্তি নিয়েই অনুশীলনে দেখা যায় সালাহ-মানেকে। তাদের সম্পর্কে লিভারপুল বস আরো বলেন, ‘আমি মনে করি, ধর্ম যার যার ব্যক্তিগত বিষয়। তা নিয়ে আমার কোনো কিছু বলার নেই। ফাইনালের আগে যতটুকু শক্তি দরকার ঠিক ততটুকু শক্তি নিয়েই অনুশীলন করে তারা।’

রোজা রেখে অনুশীলন করলেও গতবারের মতো এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে রোজা রাখছেন না সালাহ। লিভারপুলের এই ফরোয়ার্ড সম্পর্কে এমন মন্তব্যই করেছেন দলটির ফিজিও রুবেন পন্স।

পন্স বলেন, ‘টটেনহ্যামের বিপক্ষে ম্যাচে রোজা রেখে খেলবেন না সালাহ। আমরা পুষ্টিবিজ্ঞানীদের সঙ্গে এ সম্পর্কে আলোচনা করেছি। এটা (রোজা রাখা, না রাখা) তার শরীরে কোন প্রভাব ফেলবে না।’

এএইচএস/এসএএস/এমকেএইচ