লাওসের মাঠেই কাজটা এগিয়ে রাখতে চান জামাল ভূঁইয়ারা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:০১ পিএম, ০৬ জুন ২০১৯

ফিফার সর্বশেষ র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে মাত্র চার ধাপ এগিয়ে লাওস। বাংলাদেশ ১৮৮, লাওস ১৮৪। প্রায় সমশক্তির দুটি দলের মাঠের লড়াই জম্পেসই হওয়ার কথা। তবে প্রথম ম্যাচটা লাওসের মাটিতে বলে তাদের একটু এগিয়ে রেখেই মাঠে নামবে জেমি ডে’র শিষ্যরা।

এই এগিয়ে রাখা মানেই আগে হেরে বসা নয়। বাংলাদেশ এই ম্যাচ জয়ের জন্যই মাঠে নামবে। বুধবার ভিয়েনতিয়েনে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের কোচ জেমি ডে এবং অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া প্রতিপক্ষকে শক্তিশালী উল্লেখ করেছেন এবং নিজেরা যে জয়ের জন্য নামবেন সেটাও বলেছেন।

দক্ষিণ এশিয়া ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ দুটির মাঠে সাক্ষাৎ কমই হয়েছে। এ পর্যন্ত তিনবার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ-লাওস। ফল তিন রকম। দুই দলই একটি করে ম্যাচ জিতেছে। একটি হয়েছে ড্র।

২০০৩ সালে এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে বাংলাদেশ হেরেছিল ২-১ গোলে। গত বছর লাওসের দুই দেশের ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ ড্র হয়েছিল ২-২ গোলে এবং গত বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে বাংলাদেশ জিতেছিল ১-০ গোলে।

‘আমরা থাইল্যান্ডে ১০ দিন ভালো অনুশীলন করেছি। যা আমাদের কাজে দেবে। তবে এই ম্যাচটি অনেক কঠিন হবে। কারণ, লাওস ভালো দল। আমাদের ছেলেরা মাঠে সেরাটা দেবে জয়ের জন্য। আমরা এখানে জয়ের জন্যই খেলতে নামবো’- সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে।

অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়াও প্রতিপক্ষ লাওসে সমীহ করেই মাঠে নামার কথা বলেছেন, ‘স্বাগিতকরা অনেক স্ট্রং। বাংলাদেশ ও লাওসের ম্যাচটি তাই কঠিন হবে। আমরা ভালো প্রস্তুতি নিয়ে এসেছি। আমাদের চেষ্টা থাকবে ভুল কম করা। জয়ের জন্য যত পরিশ্রম করার মাঠে করবো আমরা।’

প্রতিপক্ষের মাঠে ভালো ফলাফল করতে পারলে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার সম্ভাবান উজ্জ্বল হবে। জামাল ভূঁইয়ারা তাই লাওসের মাঠেই সে কাজটা এগিয়ে রাখতে চান।

আইএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :