নেইমার-এমবাপেকে ছাড়াই রিয়ালের সামনে পিএসজি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪১ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ইউরোপিয়ান লিগগুলোর মৌসুম শুরু হয়ে গেছে আরও বেশ আগে। ইতিমধ্যেই প্রতিটি লিগ ৪-৫টি করে রাউন্ড খেলে ফেলেছে। কিন্তু কোথায় যেন একটি ঘাটতি। ইউরোপের সেরা লিগ, উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগই যে এখনও শুরু হলো না! অবশেষে সেই আক্ষেপও ঘুচতে যাচ্ছে। মঙ্গলবার রাত থেকে শুরু হচ্ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ।

ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে প্রথম দিন মাঠে নামবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল, লিওনেল মেসির বার্সেলোনা থেকে শুরু করে মোট ১৬টি দল। লিগের দ্বিতীয় দিন, বুধবার মাঠে নামবে রিয়াল মাদ্রিদসহ বাকি ১৬ দল।

তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম রাউন্ডেই হাই ভোল্টেজ ম্যাচ উপহার দিচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ-পিএসজি। স্পেন এবং ফ্রান্সের এই দুই জায়ান্ট যে পরস্পর মুখোমুখি হতে যাচ্ছে প্রথম ম্যাচেই! নিজেদের মাঠ পার্ক ডি প্রিন্সেসে রিয়ালকে অভ্যর্থনা জানাবে পিএসজি।

রিয়াল মাদ্রিদের আগের সেই শক্তি এখন আর নেই। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো চলে যাওয়ার পর থেকে রিয়াল যেন ডানা ভাঙা ঈগল। গোল স্কোরারই নেই তাদের সঠিকভাবে। এমন খর্ব শক্তির একটি দলের বিপক্ষে অনায়াসেই জয় বের করে আনার ক্ষমতা রাখে পিএসজি।

কিন্তু দলটির দুর্ভাগ্য, রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই তারা পাচ্ছে না দলের দুই সেরা তারকা, বিশ্বের সবচেয়ে দুই সেরা দামি ফুটবলার নেইমার এবং কাইলিয়ান এমবাপেকে।

ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার ভুগছেন তিন ম্যাচ নিষেধাজ্ঞায়। গত চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যানইউর সঙ্গে হোম ম্যাচে হেরে পিএসজির বিদায়ের দিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় রেফারিং নিয়ে বাজে মন্তব্য করার জের ধরে তাকে তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা।

সেই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর শুরু হচ্ছে রিয়ালের বিপক্ষে এই ম্যাচ থেকে। এর অর্থ পিএসজির হয়ে পরের দুই ম্যাচেও খেলতে পারছেন না নেইমার। তার দল ছাড়া না ছাড়া নিয়ে দীর্ঘ সময় ধরে রশি টানাটানির পর অবশেষে পিএসজিতেই থেকে যেতে হয়েছে ব্রাজিলিয়ান তারকাকে।

এরপর গত শনিবারই প্রথম মাঠে নামেন তিনি এবং শেষ মুহূর্তে দুর্দান্ত এক গোল করে পিএসজিকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। এমন এক তারকার অনুপস্থিতিতে রিয়ালের বিপক্ষে পিএসজিকে মাঠে নামতে হবে, তা নিশ্চিতভাবেই দলটির সমর্থকদের জন্য অস্বস্তিকর।

অন্যদিকে কাইলিয়ান এমবাপে খেলতে পারছেন না মাসল ইনজুরিতে পড়ার কারণে। তুলুজের বিপক্ষে ম্যাচের সময় ইনজুরিতে পড়েন তিনি। যদিও তিনি ব্যক্তিগতভাবে অনুশীলন চালিয়ে গেছেন। তবুও, রিয়ালের বিপক্ষে ম্যাচটা মিস করছেন তিনি, এটা প্রায় নিশ্চিত।

শুধু নেইমার আর এমবাপে নয়, আরেক তারকা স্ট্রাইকার এডিনসন কাভানিকেও হয়তো দলে পাচ্ছে না পিএসজি। কারণ, এখনও ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সেরে ওঠেননি তিনি। যার ফলে লজ ব্লাঙ্কোজদের বিপক্ষে মাঠে নামার সম্ভাবনা কম কাভানিরও।

লম্বা ইনজুরির মিছিল। সুতরাং, রিয়ালের বিপক্ষে আক্রমণভাগ কিভাবে সাজাবেন পিএসজি কোচ থমাস টুখেল? ম্যাচ শুরুর আগে বলা মুস্কিল।

আইএইচএস/এমকেএইচ