‘যেখানে বল সেখানেই প্রতিরোধ’

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৪৬ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

ওমানের বিরুদ্ধে মাঠে কৌশলটা কি হবে? ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ১০০ ধাপ এগিয়ে থাকা দলটির বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে বাংলাদেশের কোচের কাছে এ প্রশ্নটাই মোটা দাগে ওঠাটা স্বাভাবিক। ম্যাচটি আবার ওমানেরই মাঠে।

ম্যাচে হারানোর কিছু নেই বাংলাদেশের। তবে পাওয়ার আছে অনেক। মাসকাট থেকে কিছু নিয়ে আসতে পারলে তা হবে বাংলাদেশের ফুটবলের অনন্য পাওয়া। সেই কিছুটা কি জয় নাকি ড্র? দুটির একটিও না হতে পারে। দুর্দান্ত একটা লড়াইওতো কম নয় বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে ‘ই’ গ্রুপের অন্যতম এই ফেবারিটদের বিরুদ্ধে।

ভালো কিছু করতে হলে আগেভাগে গোল খাওয়া যাবে না। বাংলাদেশ কি তাহলে রক্ষণে গুরুত্ব দিয়ে খেলবে? কোচ জেমি ডে শুধু রক্ষণে গুরুত্বের বিষয়টি মানছেন না। তার কাছে মাঠের প্রতি ইঞ্চি মাটিই গুরুত্বপূর্ণ। কেবল নিজেদের গোল পোস্টের সামনে ও সীমানাতেই রক্ষণ নয়, রক্ষণাত্মক হতে হবে সব জায়গায়ই।

বল যেখানেই থাকুক, সেখানে কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করতে হবে। এক কথায় যেখানে বল সেখানেই প্রতিরোধ। ওমানকে খেলার সুযোগ যতো কম দেয়া যাবে ততই মঙ্গল। সুযোগ পেলেই বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম শক্তিশালী দলটি।

ওমানের বিরুদ্ধে ম্যাচটির ঠিক ২৪ ঘন্টা আগে বাংলাদেশ কোচের মুখ থেকেই রক্ষণের কথাটি জোর দিয়ে বের হয়েছে। তিনি পরিস্কারই বলেছেন ‘উই হ্যাভ টু বি সলিড অলওভার দ্য পিস ডিফেন্সিভলি।’ মানে পুরো মাঠেই তিনি ডিফেন্সিভ মুডে থাকতে চান। তো বল যেখানেই থাক। এর মধ্যে দিয়েই গোলের যে সুযোগগুলো আসবে তা কাজে লাগানোর চেষ্টার দাওয়াইও দিয়েছেন তার শিষ্যদের।

আগের তিন ম্যাচে বাংলাদেশ অনেক সুযোগ পেয়ে কাজে লাগাতে পেরেছিল মাত্র একটি। কোচ জেমি ডে, সেই সুযোগ বাড়ানোর পরিমান বাড়াতে চান ‘আমরা এই জায়গাটায় কাজ করেছি। সুযোগগুলো কিভাবে বেশি কাজে লাগানো যায় সে দিকে নজর রাখতে হবে।’

আরআই/আইএইচএস/এমএস