ফ্রান্সের হয়ে খেলতে পারবেন না বেনজেমা, খুঁজছেন নতুন দেশ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০০ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

লম্বা সময় ধরে ফ্রান্স জাতীয় দলের বাইরে বর্তমান সময়ের অন্যতম বিশ্বসেরা স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে দুর্দান্ত সময় কাটানোর পরও ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে খেলার সৌভাগ্য হচ্ছে না বেনজেমার। ২০১৬ ইউরো, ২০১৮ বিশ্বকাপ জয়- কোনোটারই সঙ্গী হতে পারেননি তিনি।

তবে সম্প্রতি দুর্দান্ত ফর্মে থাকার কারণে ফ্রান্সের ফুটবল সমর্থকরা পর্যন্ত দাবি তুলেছে ফ্রান্স জাতীয় দলে তাকে সুযোগ দেয়ার জন্য। ধারণা করা হচ্ছিল, খুব শিগগিরই হয়তো দিদিয়ের দেশমের দলে জায়গা পেয়ে যাবেন।

এমনই যখন পরিস্থিতি, তখন হঠাৎ করেই সামনে চলে এলেন ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি নোয়েল লি গ্রিট। তিনি সরাসরি বলে দিলেন, ‘ফ্রান্সের হয়ে করিম বেনজেমার আর খেলার সম্ভাবনা নেই। তাকে আর কখনোই ফ্রান্স জাতীয় দলে নেয়া হবে না।’

২০১৫ সালে ফ্রান্স জাতীয় দলে সতীর্থ ম্যাথ্যু ভালবুয়েনার একটি সেক্স ভিডিও কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িয়ে দেয়া হয় করিম বেনজেমাকে। যে কারণে তাকে গ্রেফতারও করা হয়। শেষ পর্যন্ত তাকে ফ্রান্স জাতীয় দলে নিষিদ্ধ করা হয়। করিম বেনজেমা এরপর নিজেকে যতই নির্দোষ দাবি করুন না কেন, কোচ দিদিয়ের দেশম বরাবরই উপেক্ষা করে যান তাকে।

সম্প্রতি রিয়াল মাদ্রিদ কোচ এবং দিদিয়ের দেশমের এক সময়কার সতীর্থ জিনেদিন জিদান বলেছেন, ‘আমি ফ্রান্সের কোচ হলে বেনজেমাকে আমার দলে অপরিহার্য হিসেবে রাখতাম।’ দেশম জবাবে বললেন, ‘জিদান রিয়ালের কোচ। বেনজেমা তার দলের খেলোয়াড়। তিনি এমন কথা বলতেই পারেন। এটা তার চাকরি। কিন্তু জাতীয় দল নিয়ে কথা বলা তার সাজে না।’

শেষ পর্যন্ত ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিলো, বেনজেমার জন্য ফ্রান্স জাতীয় দলের দরজা পুরোপুরি বন্ধ। এফএফএফের প্রেসিডেন্ট এক বার্তায় বলেছেন, ‘করিম বেনজেমা অবশ্যই একজন গ্রেট খেলোয়াড়। আমি তার কোয়ালিটি নিয়ে কখনোই প্রশ্ন তুলবো না। শুধু তাই নয়, রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে সে নিজেকে নিজের পজিশনে খুব ভালোভাবেই প্রমাণ করেছে।’

তবুও বেনজেমাকে দলে নিতে রাজি নন এফএফএফ প্রেসিডেন্ট গ্রিট। তিনি বলেন, ‘তবুও ফ্রান্সের জন্য তার দরজা চিরদিনের জন্য বন্ধ।’

ফ্রান্সের দরজা বন্ধ। তাহলে কি কোনো জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল আর খেলা হবে না করিম বেনজেমার? তিনি যেহেতু আলজেরীয় বংশোদ্ভূত, তাই জোর গুঞ্জন উঠেছে, চাইলে আলজেরিয়ার হয়েও খেলতে পারেন।

নিজ মুখে কিন্তু বেনজেমা বলেননি যে তিনি আলজেরিয়ার হয়ে খেলতে চান। তবে ভিন্ন কোনো দেশের হয়ে খেলার সম্ভাবনার কথা তিনি নিজেই বলে দিয়েছেন। ৩১ বছর বয়সী এই রিয়াল তারকা টুইটারেই জবাব দিয়েছেন নোয়েল গ্রিটের। তিনি লিখেছেন, ‘নোয়েল, আমি ভেবেছি, তুমি কোচে দেশমের কাজের ওপর কোনো হস্তক্ষেপ করবে না। মনে রেখো, এতেই আমার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ করে দিতে পারবে না তুমি।’

এর পরক্ষণেই তিনি লিখেছেন, ‘যদি তুমি তাই মনে কর, তাহলে আমিও বলে দিতে চাই, অন্য যে দেশের হয়ে খেলার সুযোগ পাবো, তাদের হয়ে আমি খেলবো এবং সবাই সেটা দেখবে।’

বেনজেমার এই টুইটের রই গুঞ্জন ওঠে, তাহলে কি তিনি আলজেরিয়ার হয়ে খেলার চিন্তা করছেন? যদিও বিষয়টা খুবই জটিল।। কারণ ফ্রান্স সকার যদি তার নাগরিকত্ব নিয়ে কোনো ঝামেলা তৈরি করে, তাহলে তখন কিন্তু তিনি পারবেন না আলজেরিয়ার হয়ে খেলতে।

কিন্তু করিম বেনজেমার জন্য সে সম্ভাবনাও শেষ হয়ে যাচ্ছে। কারণ, পশ্চিম আফ্রিকার দেশ আলজেরিয়ার কোচ জামেল বেলমাদি সে সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন। তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, তার দলে করিম বেনজেমার মত খেলোয়াড়কে খাপ খাওয়াতে পারবেন না।

এক সাক্ষাৎকারে জামেল বেলমাদি বলেন, ‘আমার কাছে বৌনেদজাহ, স্লিমানি, ডেলরট এবং সৌদানির মত খেলোয়াড়রা রয়েছেন। এদেরকে নিয়েই আমি খুব সুখে আছি।’

এ কথা বলেই মূলতঃ বেনজেমার জন্য দরজা বন্ধ করে দিয়েছে আলজেরিয়াও। যদি বেনজেমা আলজেরীয় নাগরিকত্ব পায়ও, তাতেও প্রসেসটা হবে খুবই কঠিন।

আইএইচএস/এমএস