সেই ভুটানের কাছে আবারও পরাজয়ের ধাক্কা জামাল ভূঁইয়াদের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:১১ পিএম, ০২ ডিসেম্বর ২০১৯

ভারত নেই। নেই পাকিস্তানও। এসএ গেমস ফুটবলে এবার দল পাঁচটি। এমননিতেই ফুটবলে বাংলাদেশের সময়টা ভালো যাচ্ছিল। তারওপর গেমসে নেই ভারত। দক্ষিণ এশিয়ার এই গেমস ফুটবলে তাই স্বর্ণের প্রত্যাশাও অনেকে বেড়ে গেছে বাংলাদেশের; কিন্তু শুরুটা যে হলো যাচ্ছেতাই! প্রথম ম্যাচেই হার ভুটানের মত দলের কাছে।

২০১৬ সালে থিম্পুতে এই ভুটানের কাছে হারের পরই একটা ঝড় বয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ফুটবলের ওপর দিয়ে। তিন বছর পর সেই ভুটান আবারও বাংলাদেশের ফুটবলকে দিলো বড় এক ধাক্কা। নেপালের কাঠমান্ডুর সরথ স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে হেরে ফাইনালে ওঠার পথটা কঠিন করেই তুললো বাংলাশে।

ভারত না থাকায় কোচ জেমি ডে নেপাল ও মালদ্বীপকে শক্ত প্রতিপক্ষ উল্লেখ করেছেন; কিন্তু বাংলাদেশ যে হেরে গেলো ভুটানের কাছে! ২০১৬ সালে ভারতের গুয়াহাটি ও শিলং এসএ গেমস ফুটবলে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ ড্র করেছিল ভুটানের বিরুদ্ধে। এবার হেরেই গেলো।

চেনচো গেইলশেন। নাম্বার সেভেন এই ফরোয়ার্ডকে অনেকে বলেন, ‘ভুটানের রোলালদো’। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগেও খেলে গেছেন। সেই চেনচোই ৬৫ মিনিটে গোল দিয়ে পাহাড়ী দেশটিকে এনে দিয়েছে এসএ গেমসে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম জয়।

২০১৬ সালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম জয়ের ম্যাচেও চেনচো করেছিলেন জোড়া গোল। ভুটান ম্যাচ জিতেছিল ৩-১ ব্যবধানে।

আরআই/আইএইচএস/এমকেএইচ