ইন্টারের বিদায়ঘণ্টা বাজাল মেসিবিহীন বার্সেলোনা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৭ এএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯

টানা খেলা ও ভ্রমণজনিত ক্লান্তি, সামনে এল ক্লাসিকোর মতো মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। তার ওপর আগেই নিশ্চিত হয়েছে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার খবর।

তাই স্বাভাবিকভাবেই গ্রুপের শেষ ম্যাচটিতে দলের সেরা তারকাদের বিশ্রাম দিয়েছিলেন বার্সেলোনার কোচ আর্নেস্ত ভালভার্দে। লিওনেল মেসি, জেরার্ড পিকে, টের স্টেগানসহ সবশেষ ম্যাচের ৭ জনকেই শুরুর একাদশে রাখেননি তিনি।

মূলত চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলো নিশ্চিত হওয়ার কারণেই এমন বিলাসিতা করতে পেরেছেন ভালভার্দে। কিন্তু উল্টো পরিস্থিতিতে ছিলো প্রতিপক্ষ ইন্টার মিলান। ডেথ গ্রুপে পড়ে বিদায় ঠেকানোর জন্য শেষ ম্যাচটিতে জয়ের বিকল্প ছিলো না তাদের সামনে। যে কারণে পূর্ণ শক্তির দলই নামান ইন্টার কোচ।

এতে অবশ্য শেষ রক্ষা হয়নি। নিজেদের ঘরের মাঠে মেসিবিহীন বার্সেলোনার কাছে ১-২ গোলে চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের আসর থেকে বিদায় নিয়েছে সিরি আ'র টেবিল টপার দলটি। অন্যদিকে অপরাজিত থেকেই শেষ ষোলোর ম্যাচে খেলতে নামবে বার্সেলোনা।

মঙ্গলবার রাতে প্রায় দ্বিতীয় একাদশ নামিয়েও লিড পেতে মাত্র ২৩ মিনিট অপেক্ষা করতে হয় বার্সেলোনাকে। ইন্টারের মাঠে গিয়ে শুরুতে আধিপত্য বিস্তার করতে সমস্যায় পড়া কাতালুনিয়ানদের পক্ষে প্রথম গোলটি করেন কার্লেস পেরেজ।

তবে পিছিয়ে থাকাটা বেশিক্ষণ মানতে পারেনি ইন্টার। বিরতির আগেই সৌভাগ্যসূচক গোলে সমতায় ফেরে ইন্টার। লাউতারো মার্তিনেসের কাছ থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকেই জোরালো শট নেন লুকাকু। বার্সা ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে দিক পাল্টে বল জড়িয়ে যায় জালে।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। একের পর এক আক্রমণ করেও গোলের দেখা পাচ্ছিলো না কোনো দল। টের স্টেগানের জায়গায় সুযোগ পেয়ে বেশ ভালো গোলকিপিং করেন নেতো।

ম্যাচের একদম শেষ দিকে ৮৬ মিনিটের সময় বার্সাকে জয়সূচক গোল এনে দেন লা মাসিয়ার ছেলে আনসু ফাতি। ৮৫ মিনিটে প্রথম গোলদাতা পেরেসকে বসিয়ে ফাতিকে নামিয়েছিলেন বার্সা কোচ।

পরের মিনিটেই দলকে কাঙ্ক্ষিত গোল পাইয়ে দেন ১৭ বছর বয়সী ফাতি। লুইস সুয়ারেজের সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নিচু শটে দলকে জয় পাইয়ে দেয়া গোলটি করেন তিনি।

এ পরাজয়ের কারণে ৬ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ইউরোপা লিগে নেমে গেলো ইন্টার মিলান। দিনের অন্য ম্যাচে স্লাভিয়া প্রাহাকে হারিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড।

এসএএস/জেআইএম