বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে লড়াই এখন এশিয়া-আফ্রিকার

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:১৭ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০

এশিয়ার বাংলাদেশ, ফিলিস্তিন ও শ্রীলংকা এবং আফ্রিকার বুরুন্ডি, সিসেলশ ও মরিশাস- বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের শুরুর ৬ দেশ। গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে শ্রীলংকা ও মরিশাস। টুর্নামেন্ট এখন চার দলের মধ্যে ছোট হয়ে এসেছে। সেখানেও এশিয়া-আফ্রিকা সমানে সমান।

কাকতলীয়ভাবে এক গ্রুপে পড়েছিল এশিয়ার তিন দল, অন্য গ্রুপে আফ্রিকার। তাই সেমিফাইনালের দুটি লড়াই-ই হতে যাচ্ছে এশিয়া ও আফ্রিকার। একটি আগামীকাল (বুধবার) ফিলিস্তিন ও সিসেলশ, অন্যটি পরেরদিন বাংলাদেশ এবং বুরুন্ডির।

ফাইনালেও এশিয়া বনাম আফ্রিকার লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা যেমন আছে, তেমন আছে অল এশিয়া কিংবা অল আফ্রিকা ফাইনালের। শেষ পর্যন্ত কি হয় সেটা সময়ই বলে দেবে। অপেক্ষা করতে হবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

টুর্নামেন্টে এবারও ফেবারিট ফিলিস্তিন। যারা হেসেখেলেই উঠেছে সেমিফাইনালে। গতবার ট্রফি উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি এবারও বদ্ধপরিকর তাদের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখতে। আর দুটি ম্যাচ জিতলেই আবার বিজয়ী দল হিসেবে টুর্নামেন্ট শেষ করবে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

ফিফা র‍্যাংকিং আর শক্তিমত্তায় এগিয়ে থাকা ফিলিস্তিন সেমিফাইনালে ফেবারিট সিসেলসের বিরুদ্ধে। আফ্রিকার দেশটির র‍্যাংকিং ২০০ এবং ফিলিস্তিনের ১০৬। তারপরও ৯৪ ধাপ সামনে থাকা দলটির বিরুদ্ধে সেমিফাইনাল জিতে ফাইনালে খেলার স্বপ্ন দেখছে আফ্রিকার পুঁচকে দেশটি। তারা আগামীকাল (বুধবার) প্রথম সেমিফাইনালে খেলতে নামছে চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে।

অন্য সেমিফাইনালের দিকেই নজর বেশি সবার। কারণ, বৃহস্পতিবার খেলতে নামবে লাল-সবুজ জার্সিধারী বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ ৩৬ ধাপ সামনে থাকা আফ্রিকার দেশ বুরুন্ডি। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বুরুন্ডিকে নিয়ে যারা হাসাহাসি করেছিল তাদের মুখটা ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দিয়েছেন আফ্রিকার দেশটির ফুটবলারা। যেনতেনভাবে নয়, তারা গ্রুপ পর্বের দুই ম্যাচে প্রতিপক্ষকে দুমড়ে-মুচড়ে উঠেছে সেমিফাইনালে। দুই ম্যাচে ৭ গোল-প্রতিপক্ষের ডিফেন্স তছনছ করেই ছেড়েছে তারা।

বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে এবং অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া সেমিফাইনালের আগে বুরুন্ডির ভয়ংকর আক্রমণভাগের কথাই মনে করিয়ে দিচ্ছেন সমর্থকদের। বিশেষ করে দলটির ফরোয়ার্ড জসপিনের কথা বারবার বলছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। দুই ম্যাচে হ্যাটট্রিকসহ চার গোল করেছেন এই আফ্রিকার ফরোয়ার্ড।

বুরুন্ডিকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠার স্বপ্নপূরণ করা বাংলাদেশের জন্য সহজ হবে না। দেশটির আক্রমণ ঠেকাতে বাংলাদেশের তো নেই জমাট ডিফেন্স। অভিজ্ঞ তপু বর্মন আগের ম্যাচে লালকার্ড পেয়ে জেমি ডের কপালের ভাঁজটা যে মোটা করে দিয়েছেন।

আরআই/আইএইচএস/এমকেএইচ