মেসি জড়িয়ে ধরেছে, তাই জার্সি ধোবেন না তিনি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২৬ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনায় নাম লেখানোর পর থেকে ক্রমাগত হাস্যরসের শিকার হচ্ছিলেন ডেনমার্কের ২৮ বছর বয়সী মিডফিল্ডার মার্টিন ব্রাথওয়েট। ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড ওসুমানে ডেম্বেলের ইনজুরিতে অনেকটা জরুরি ভিত্তিতেই তাকে দলে নেয়া হয়েছে।

দলে যোগ দেয়ার পর প্রেজেন্টেশনের দিন স্কিল দেখাতে গিয়ে কিছু ভুল করেছিলেন ব্রাথওয়েট। যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে পরিণত করে ট্রলের বস্তুতে। সমালোচকরা ব্রাথওয়েটের মাঠে নামা পর্যন্তও অপেক্ষা করতে রাজি ছিলো না। শুরু করে দিয়েছিল বার্সেলোনা টিম ম্যানেজম্যান্টের মুণ্ডুপাত।

তবে সব সমালোচনা ও তীর্যক কথার জবাব প্রথম ম্যাচেই দিয়েছেন ব্রাথওয়েট। শনিবার রাতে এইবারের বিপক্ষে ম্যাচে বার্সেলোনার হয়ে অভিষেক হয়েছে এ ডেনিশ মিডফিল্ডারের। নিজের প্রথম ম্যাচে মাত্র ১৬ মিনিটের জন্য মাঠে নেমেছিলেন ব্রাথওয়েট।

আর তাতেই আলো ছড়িয়েছেন তিনি। বার্সেলোনার ৫-০ গোলের বড় জয়ে শেষের দুই গোলের এসিস্ট করেছিলেন ব্রাথওয়েট। এর মধ্যে তার প্রথম এসিস্ট ছিলো আবার দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসির গোলে। ব্রাথওয়েটের পাস থেকে গোল করে ডাবল হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মেসি।

সেই গোলের উদযাপনের স্বভাবতই ব্রাথওয়েটকে জড়িয়ে ধরেন বার্সেলোনা অধিনায়ক। আর সেই আলিঙ্গন পেয়ে যেন সপ্তাকাশে উঠে গেছেন দলটির নতুন খেলোয়াড় ব্রাথওয়েট। একপ্রকার সিদ্ধান্তই নিয়ে ফেলেছেন যে, মেসির জড়িয়ে ধরা জার্সিটি তিনি আর ধুতে দেবেন না।

ম্যাচ শেষে সংবাদকর্মীদের সঙ্গে মজার ছলেই ব্রাথওয়েট বলেন, ‘আমি এখন জার্সিটি আর ধুবো না। কারণ সে আমাকে জড়িয়ে ধরেছে। মেসি সত্যিই অসাধারণ মানুষ। সে আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছে। মাঠে নামার পর থেকেই আমাকে সাহায্য করার চেষ্টা করেছে। প্রতিটা পাস দেয়ার সময় আমাকে খুঁজেছে মেসি।’

তিনি আরও বলেন, ‘সত্যিই আমি মেসির গোলে এসিস্ট করতে পেরে অনেক বেশি খুশি। এই দলে দারুণ সব খেলোয়াড়দের সঙ্গে থাকতে পেরেয়ামি বেশ ভালো অনুভব করছি। আমি চেষ্টা করেছি মাঠে নিজেকে ব্যস্ত রাখতে। যাতে করে সতীর্থরা সহজেই আমাকে খুঁজে পায়। প্রথম ম্যাচটা ভালো কেটেছে। আমি অনেক খুশি।’

এদিকে বার্সা কোচ কিকে সেতিয়েনও নিজের নতুন শিষ্যের ওপর সন্তুষ্ট। তিনি বলেন, ‘ব্রাথওয়েট আমার প্রত্যাশার চেয়েও ভালো করেছে। সত্যি বলছি, মাঠে সে দুর্দান্ত ছিল এবং আমার মনে হয় এটা আমাদের জন্য অনেক ভালো একটা সাইনিং।’

এসএএস/পিআর