‘এসব শুনতে শুনতে ক্লান্ত হয়ে গেছি’

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৪২ পিএম, ০৬ জুলাই ২০২০

আগের ম্যাচে নিজেদের মাঠে গেটাফে, এরপর রোববার সান মামেসে স্বাগতিক অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ম্যাচের শেষ দিকে এসে পেনাল্টি গোল থেকে কোনোমতে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ। দুই ম্যাচেই স্পট কিক থেকে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন সার্জিও রামোস।

আগে থেকেই বিভিন্ন ক্লাবের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছিল, সব সময় রেফারির সহযোগিতা পেয়েই জিতছে রিয়াল মাদ্রিদ। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে রিয়ালের জয়ের পরও একই অভিযোগ উঠলো। শুধু তাই নয়, বার্সেলোনা সভাপতি হোসে মারিয়া বার্তেম্যু সরাসরি অভিযোগ করেন, রিয়াল মাদ্রিদ সব সময়ই রেফারির আনুকুল্য পেয়ে আসছে।

এসব অভিযোগের জবাব দিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের অধিনায়ক এবং পেনাল্টি থেকে গোলদাতা সার্জিও রামোস। তিনি সরাসরি বলে দিয়েছেন, ‘সব সময়ই অভিযোগ করা হচ্ছে। এসব অভিযোগ শুনতে শুনতে আমরা ক্লান্ত হয়ে গেছি। রিয়াল মাদ্রিদ জিতলেই তারা অভিযোগ করে রেফারিং নিয়ে। কিন্তু রিয়াল কখনোই রেফারির আনুকুল্য নিয়ে জেতে না। জেতে নিজেরা ভালো খেলেই।’

সান মামেসে ম্যাচের ৭৩ মিনিটে মার্সেলোকে ডি বক্সের মধ্যে অ্যাটলেটিকো মিডফিল্ডার দানি গার্সিয়া টেনে ধরলে রেফারি হোসে গঞ্জালেজ ভিএআর দেখে পেনাল্টির বাঁশি বাজান। সেটাকেই স্পট কিক থেকে গোলে পরিণত করেন সার্জিও রামোস।

রামোস বলেন, ‘আমরা কখনোই রেফারির কারণে জিতিও না, হারিও না। যারাই নিজেরা ভুল করে এবং কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন করতে পারে না এবং কঠিন অবস্থার মধ্যে পড়ে যায়, তারাই এসব অভিযোগ নিয়ে হাজির হয়। রিয়াল মাদ্রিদ তো এবারই প্রথম জিতছে না যে রেফারি সহযোগিতা করবে!’

এ নিয়ে লা লিগার এবারের মৌসুমে সার্জিও রামোসের ১০ম পেনাল্টি কিক থেকে গোল করলেন। তবে, করোনা লকডাউন শেষে ফুটবল ফেরার পর ৫ম গোল তার। যা অন্য যে কোনো ফরোয়ার্ড কিংবা অন্য যে কোনো ফুটবলারের চেয়ে বেশি।

রামোস বলেন, ‘আমরা তো এই জয়ের জন্য রেফারিকে কোনো কৃতিত্ব দিচ্ছি না। আমরা তো এমনিতেই লা লিগার শীর্ষে রয়েছি। তারা নিজেরা ভালো কিছু করতে না পেরে, আমাদের পেছনে লেগেছে।’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]